তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবার দাবি

তাহিরপুর প্রতিনিধি:
তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের কমিটির বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেবার আবেদন জানিয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের ৬৭ সদস্যের মধ্যে ৪৫ জন সদস্য। সোমবার সন্ধ্যায় জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের কাছে তারা এই আবেদন জমা দেন।

আবেদনে উল্লেখ করা হয়, বর্তমান কমিটি হবার পর একদিনও কমিটির সভা হয় নি। কমিটির পরিচিতি সভাও হয়নি। সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক একটি সভাও আহ্বান করেননি। এ কারণে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সহযোগি সংগঠনের মধ্যে সমন্বয়হীনতা-বিশৃঙ্খলা দেখা দিয়েছে। আবেদনকারীরা সংগঠনের বৃহৎ স্বার্থে বর্তমান কমিটি বিলুপ্ত করে যোগ্য ও দক্ষদের নিয়ে কমিটি করার দাবি জানান।

বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মো. আলী মর্তুজা, মো. নুরুল আমীন, আলকাছ উদ্দিন খন্দকার, জালাল উদ্দিন, মোশারফ হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম, আমিনুল ইসলাম, আইন বিষয়ক সম্পাদক ইউনুছ আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক মুদাছিল আলম সুবল, কৃষি ও সমবায় সম্পাদক খেলু মিয়া, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক স্বপন দাস, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মঞ্জু রানী রায়, কোষাধ্যক্ষ নীহার রঞ্জন দাস মনু, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক, রিয়াজ উদ্দিন খন্দকার, যুব ক্রীড়া সম্পাদক মিয়া হোসেন, দপ্তর সম্পাদক রমেন্দ্র নারায়ণ বৈশাখ, সহ দপ্তর সম্পাদক শাহীন রেজা, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক নজরুল ইসলাম মাসুক, সাংগঠনিক সম্পাদক এখলাছুর রহমান, সহ প্রচার সম্পাদক অঞ্জন তালিুকদার, বন ও পরিষদ সম্পাদক কামাল আখঞ্জি, সদস্য হাজী ইছব আলী সেলিম হায়দার, মাসুক মিয়া, সুষেন বর্মণ, মো. মিজানুর রহমান মিজান, আজিজুল, কালা চান, দুলাল মিয়া, বাদল দেবনাথ, হুমায়ূন কবির, জাবির আহমেদ, রফিকুল ইসলাম, প্রভাত সরকার, সেলিম আখঞ্জী, নুর হোসেন মল্লিক, সুজাত মিয়া, মহিবুর রহমান চৌধুরী, শাহজাহান চৌধুরী, শাহজাহান খন্দকার, বিষ্ণু পাল, শামীম আহমেদ, নিখিল রায়, বাবুল মিয়া ।

আরও