যাদের দেখলে লোভ সামলাতে পারেন না মেসি

মৌসুমের শুরুটা আদর্শ হয়নি লিওনেল মেসির। শুরুতেই চোটে পড়েছেন, বসে থাকতে হয়েছে বেশ কিছু ম্যাচে। যে কয়টি ম্যাচ খেলেছেন, এখনো গোলের দেখা পাননি। ইউরোপিয়ান গোল্ডেন শুরু দৌড়ে তাই বেশ পিছিয়ে গেছেন এরই মাঝে। তবে দৌড় শুরু করার জন্য আজ সেরা উপলক্ষ পাচ্ছেন মেসি। নিজের মাঠে প্রিয় প্রতিপক্ষকে যে পাচ্ছেন আজ।

স্পেনের সব বড় দলই মেসির রুদ্র মূর্তির শিকার হয়েছেন। সেটা অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ (২৯ গোল) হোক, হোক সেটা ভ্যালেন্সিয়া (২৭) কিংবা রিয়াল মাদ্রিদ (২৬)। কাতালান প্রতিবেশী এস্পানিওলকেও কম যন্ত্রণা দেননি মেসি (২৫ গোল)। স্পেনের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ দুই অঞ্চলের প্রতিনিধিরাও তাঁর গোল বন্যার শিকার। বাস্ক অঞ্চলের অ্যাথলেটিক বিলবাওর বিপক্ষে ২৪ গোল করা মেসির আন্দালুসিয়ার রিয়াল বেতিসের বিপক্ষেও আছে ২৩ গোল। তবে আন্দালুসিয়ার সবচেয়ে বড় দল সেভিয়াই মেসির সবচেয়ে প্রিয় প্রতিপক্ষ।

সেভিয়ার বিপক্ষে ৩৭ ম্যাচ খেলে ৩৬ গোল মেসির। প্রতি ৬১ মিনিটে একটি গোল করেছেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড। এ মৌসুমে ২১০ মিনিট খেলেও কোনো গোল করতে পারেননি। বেশ অনেক দিনের জমে ওঠা ক্ষুধা মেটানোর জন্য সেভিয়ার চেয়ে আর কোনো ভালো প্রতিপক্ষ পেতে পারতেন না মেসি। শুধু যে গোল করেন তা তো নয়, সেভিয়ার বিপক্ষে সবচেয়ে বেশি এসিস্টও তাঁর। ক্যারিয়ারে সতীর্থদের দিয়ে অনেক গোল করিয়েছেন, তবে সবচেয়ে বেশি কাজটা করেছেন সেভিয়ার বিপক্ষেই (১৮)।

লিগ ম্যাচে অবশ্য গোলদাতা মেসিই সবচেয়ে বেশি জ্বালান সেভিয়াকে। ২৫ ম্যাচে ২৮ গোলের সঙ্গে ৯টি অ্যাসিস্ট। গত মৌসুমেই সেভিয়ার মাঠে হ্যাটট্রিক করে এসেছেন মেসি। আরও দুবার সেভিয়ার বিপক্ষে হ্যাটট্রিক আছে তাঁর। লিগে সেভিয়ার বিপক্ষে মাত্র একবার হেরেছেন, সেটাও ১৩ মৌসুম আগের কথা। ১৯ বারই জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছেন। আজ তাই ন্যু ক্যাম্পে মেসিকে নিয়ে ভয়েই থাকবেন সেভিয়া কোচ হুলেন লোপেতেগি। আর ন্যু ক্যাম্পের সর্বশেষ স্মৃতিটা যে এখনো দুঃস্বপ্ন হয়ে আছে তাঁর জন্য। গত মৌসুমে রিয়ালকে নিয়ে খেলতে এসে মেসিবিহীন বার্সেলোনার কাছে ৫-১ গোলে হেরে চাকরি হারিয়েছিলেন লোপেতেগি। আজ বাংলাদেশ সময় রাত একটার ম্যাচটি তাঁর জন্য তাই প্রতিশোধের ম্যাচ।

আর মেসির জন্য? অবশ্যই গোলে ফেরার ম্যাচ।

আরও