সিলেটে ‘হেলমেট আছে তো জ্বালানি আছে’ কেবল স্লোগানেই

মোটরসাইকেল চালকদের হেলমেট ব্যবহারে সচেতন করতে ‘হেলমেট আছে তো জ্বালানি আছে’ এ স্লোগানে গত ১ অক্টোবর সিলেটে হেলমেট ছাড়া জ্বালানি তেল না দেওয়ার কার্যক্রম শুরু করে ট্রাফিক বিভাগ।

পেট্রোল পাম্প অনার্স অ্যাসোসিয়েশনের নেতাদের নিয়ে ১ অক্টোবর কার্যক্রমের উদ্বোধনও করা হয়। পুলিশের ব্যতিক্রমী এ উদ্যোগ সব মহলে প্রশংসা কুঁড়ায় এবং বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় গুরুত্বের সঙ্গে প্রচার হয়।

কিন্তু উদ্বোধনের পর ২ থেকে ৩ দিন পর্যন্ত পেট্রোল পাম্পগুলো জ্বালানি বিক্রিতে কড়াকড়ি আরোপ ছিলো। আরোহীরাও জ্বালানি সংগ্রহের জন্য হলেও হেলমেট প্রদর্শন করতেন।

কিন্তু সপ্তাহ না ঘুরতেই ‘যেই লাউ, সেই কদু’। ফের হেলমেট ছাড়া মোটরসাইকেল আরোহীদের কাছে জ্বালানি (পেট্টোল) বিক্রি শুরু করেছে পেট্টোল পাম্পগুলো। পুলিশের নির্দেশনা ভেঙে নিজেদের অবস্থান থেকে সরে আসেন পাম্প কর্মচারীরা।

রোববার (৬ অক্টোবর) নগরের বেশ কয়েকটি পেট্টোল পাম্পেই হেলমেট ছাড়া মোটরসাইকেল আরোহীদের কাছে জ্বালানি বিক্রি করতে দেখা যায়।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার ( ট্রাফিক) নিকোলিন চাকমা বলেন, প্রতিদিনই মোটরসাইকেল দুর্ঘটনা ঘটছে। বেপরোয়াভাবে মোটরসাইকেল চালাতে গিয়ে প্রাণ হারানোর ঘটনাই বেশি। তাই হেলমেট ব্যবহারে সচেতন বাড়াতে এ প্রক্রিয়া চালু করি। কিন্তু পেট্টোল পাম্পগুলো যাতে এ নিয়ম মানে এ জন্য তদারকি করা হবে। ট্রাফিক ইন্সপেক্টর ও সার্জনদের বিষয়টি মনিটরিংয়ের  নির্দেশ দেওয়া হবে।

আরও