আমেরিকায় স্বামী–স্ত্রীর স্থায়ী গ্রিনকার্ড পাওয়া সহজ হচ্ছে

আমেরিকায় স্বামী-স্ত্রী হিসেবে আসা ইমিগ্রান্ট বা অভিবাসীদের স্থায়ী গ্রিনকার্ড পাওয়া কিছুটা সহজ করা হয়েছে। আমেরিকার নাগরিকদের স্বামী বা স্ত্রী হিসেবে এ দেশে আশার পর প্রথমে দুই বছরের জন্য শর্ত সাপেক্ষে গ্রিনকার্ড দেওয়া হয়। দুই বছর পর গ্রিনকার্ডধারীকে প্রমাণ করতে হয়, তারা কেবল ইমিগ্রেশনের মাধ্যমে গ্রিনকার্ড পাওয়ার জন্য বিয়ে করেননি।
অনেক সময়েই এসব গ্রিনকার্ডধারী বিয়ের মাধ্যমে পাওয়া গ্রিনকার্ডের শর্ত প্রত্যাহারের জন্য আর আবেদন করেন না। কারণ অনেকেই এই প্রক্রিয়া সম্পর্কে অবগত নয়, কেউ ভুলেই যান বা এ দুই বছরের মধ্যে বিবাহ বিচ্ছেদ পর্যন্ত গড়িয়ে যাওয়ার কারণে অনেকেই অন্য জটিলতায় জড়িয়ে পড়েন। এ ধরনের গ্রিনকার্ডধারীদের জন্য ২১ নভেম্বর থেকে কার্যকর নতুন আইনে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।
২১ নভেম্বর পর্যন্ত চালু থাকা আইনে শর্ত সাপেক্ষে পাওয়া গ্রিনকার্ডের লোকজনকে দ্বিতীয় বিয়ের পর নতুন করে গ্রিনকার্ডের জন্য আবেদন করতে হত। এ ক্ষেত্রে ইমিগ্রেশন বিচারকের কাছ থেকে প্রথম গ্রিনকার্ডের শর্ত প্রত্যাহারের অনুমোদন নিতে হত। অনেক ক্ষেত্রে ইমিগ্রেশন বিভাগ গ্রিনকার্ডধারীর এসব তথ্য ইমিগ্রেশন আদালতে পাঠাত না। এতে জটিলতার সৃষ্টি হতো। এমন অসংখ্য শর্তসাপেক্ষে পাওয়া গ্রিনকার্ডধারী অভিবাসীরা তাদের গ্রিনকার্ড নবায়ন করতে পারছিল না।
আমেরিকান ইমিগ্রেশন ল’ইয়ার্স অ্যাসোসিয়েশনের কর্মকর্তা অ্যাটর্নি এলিনা সান্তানা বলেন, এসব লোকজন আমেরিকার বাইরে ভ্রমণে যাওয়ার সুযোগ

নেই। অনেকটাই অবৈধ ইমিগ্রান্ট বা অভিবাসীদের মতো এদের চলাফেরা করতে হয়।

আরও