ঢাবি ছাত্রীকে ধর্ষণের মামলা তদন্তে ডিবি

রাজধানীর কুর্মিটোলা এলাকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষার্থী ধর্ষণের ঘটনা তদন্ত করবে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।
সোমবার (৬ জানুয়ারি) রাতে মামলাটি ক্যান্টনমেন্ট থানা পুলিশ তদন্তের জন্য ডিবির কাছে হস্তান্তর করে।
বিষয়টি নিশ্চিত করে ক্যান্টনমেন্ট থানার অফিসার ইনচার্জ কাজি শাহিন হক বলেন, এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা যায়নি। মামলাটি অধিকতর তদন্তের জন্য ডিবি পুলিশের কাছে দেওয়া হয়েছে। তারা মামলার নানা বিষয়ে খতিয়ে দেখছে। সে ক্ষেত্রে সহসাই এর রহস্য উন্মোচন হবে।
এর আগে একইদিন দুপুরে ভুক্তভোগী ওই শিক্ষার্থীর বাবা বাদী হয়ে ক্যান্টনমেন্ট থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলায় ১ জনকে আসামি করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, রাজধানীর কুর্মিটোলা এলাকায় ঢাবির বাস থেকে নামার পর দ্বিতীয় বর্ষের এক শিক্ষার্থীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করা হয়। রোববার (৫ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে। বর্তমানে ওই শিক্ষার্থী ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ওয়ান স্টপ সার্ভিসে চিকিৎসাধীন।
জানা যায়, সন্ধ্যা সাড়ে ৫টার দিকে শেওড়া যাওয়ার উদ্দেশে ঢাবির বাসে ওঠেন ওই শিক্ষার্থী। সন্ধ্যা ৭টার দিকে কুর্মিটোলায় বাস থেকে নামার পর অজ্ঞাত ব্যক্তি তার মুখ চেপে তাকে পার্শ্ববর্তী একটি স্থানে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে অজ্ঞান করে ধর্ষণ ও শারীরিক নির্যাতন করা হয়। পরে তার ১০টার দিকে জ্ঞান ফিরলে তিনি নিজেকে নির্জন স্থানে অবিষ্কার করেন। পরে সেখান থেকে সিএনজি যোগে নিজ গন্তব্যে পৌঁছান। পরে রাত ১২টার দিকে ওই শিক্ষার্থীকে ঢামেক হাসপাতালের ওয়ান স্টপ সার্ভিস সেন্টারেভর্তি করান তার সহপাঠীরা।

আরও