বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় ইরানের কাছে ক্ষতিপূরণ দাবি

ইউক্রেনের বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় ইরানের কাছে ক্ষতিপূরণ দাবি করেছেন কানাডা, ইউক্রেন, সুইডেন, আফগানিস্তান ও যুক্তরাজ্যের প্রতিনিধিরা। আর ক্ষতিপূরণ দিতে হবে নিহত যাত্রীদের পরিবারের কাছে। বিবৃতি পেশের মাধ্যমে তারা এ দাবি জানিয়েছেন। খবর ‘ডয়চে ভেলে’।
গত বুধবার (৮ জানুয়ারি) সকালে ইরানের রাজধানী তেহরানের ইমাম খোমেনি বিমানবন্দরের পাশে ১৮০ জন আরোহী নিয়ে বিধ্বস্ত হয় ইউক্রেনের বিমানটি। শুরুতে এটিকে নিছক দুর্ঘটনা বলে মনে হয়। তবে সোলাইমানি হত্যার জেরে মধ্যপ্রাচ্যে চলমান অস্থিতিশীল পরিস্থিতিতে এই বিমান বিধ্বস্তের বিষয়টিকে দুর্ঘটনা বলে মানতে অসম্মতি জানান অনেক কূটনীতিক।
এক পর্যায়ে যুক্তরাষ্ট্রসহ কয়েকটি দেশ দাবি করে, ইরানের ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতেই বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে। ইরান শুরুতে এই কথা অস্বীকার করলেও এক পর্যায়ে নিজেদের ভুল স্বীকার করে। এরপর থেকেই ইরানের ওপর চাপ প্রয়োগ করতে শুরু করে বিভিন্ন মহল।
ইরান ছাড়া আরও ৫টি দেশের যাত্রী ছিলেন ইউক্রেনের ওই বিমানে। বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) লন্ডনে কানাডার দূতাবাসে মিলিত হয়েছিলেন এসব দেশের প্রতিনিধিরা। এ সময় মৃত যাত্রীদের প্রতি শোকপ্রস্তাব জানিয়ে তারা একটি বৈঠক করেন।
এরপর এক বিবৃতিতে তারা বলেন, ইরানকে মৃত যাত্রীদের পরিবারের সদস্যদের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। এছাড়া দিতে হবে নিরপেক্ষ তদন্তের সুযোগ। তদন্তে কেবল এই পাঁচটি দেশের প্রতিনিধিরাই অংশ নিতে পারবেন।
এছাড়া যতদিন পর্যন্ত এ বিমান বিধ্বস্তের যাবতীয় সব বিষয় প্রকাশ হবে না ততদিন ইরানের ওপর চাপ প্রয়োগ অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছেন এসব দেশের প্রতিনিধিরা।

আরও