পুতিনের বক্তব্যে বিশ্বযুদ্ধের আভাস

সোলাইমানি হত্যার জেরে ইরান ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যকার সম্পর্কে এখন যুদ্ধাবস্থা বিরাজ করছে। ফলে মধ্যপ্রাচ্যে তৈরি হয়েছে চরম অস্থিতিশীলতা। সামগ্রিকভাবে এর প্রভাব পড়েছে বিশ্ব রাজনীতিতে। এমন পরিস্থিতিতে বিশ্বযুদ্ধের আভাস দিয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। খবর ‘গালফ নিউজ’।
বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) মস্কোতে সংসদের বার্ষিক অধিবেশনে বক্তৃতা দেওয়ার সময় অনেকটা উদ্বেগের সুরে রুশ প্রেসিডেন্ট বলেন, সম্প্রতি ইরান ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যকার সম্পর্ক আরও অবনতি হয়েছে। মধ্যপ্রাচ্যে বিরাজ করছে চরম উত্তেজনা। ইরানের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের চলমান এই উত্তেজনা বিশ্বযুদ্ধে রূপ নিতে পারে।
এ সময় আলোচনার মাধ্যমেই যাবতীয় সব সমস্যা সমাধান করার আহ্বান জানিয়েছেন রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিন। তিনি বলেন, চলমান মধ্যপ্রাচ্য সংকট নিরসনে আলোচনা জরুরি। মানবজাতির বিকাশের প্রশ্নে এ ক্ষেত্রে বিশেষভাবে পরমাণু অস্ত্রসমৃদ্ধ পাঁচটি দেশ- রাশিয়া, যুক্তরাষ্ট্র, চীন, ফ্রান্স ও যুক্তরাজ্যকে দায়িত্ব নিতে হবে।
নিজের বক্তব্যে রাশিয়া যে কোনো ধরনের যুদ্ধপরিস্থিতি মোকাবিলায় সক্ষম বলে জানিয়েছেন পুতিন। এ বিষয়ে তিনি জানান, রাশিয়া এখন অতীতের চেয়ে অনেক বেশি নিরাপদ। কারণ আমাদের সর্বাধুনিক অস্ত্র রয়েছে, যা আর কারও নেই। তবে আমাদের আরও উন্নত অস্ত্র প্রস্তুত করতে হবে।
পুতিন আরও বলেন, রাশিয়া কোনো দেশের জন্য হুমকি নয়। আগ্রহী যে কোনো দেশকে আমরা সহযোগিতা করতে চাই। জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থেই আমরা উন্নত অস্ত্র তৈরির কাজ চালিয়ে যাচ্ছি।

আরও