পদ্মা সেতুর ২০০ কর্মকর্তাকে চীন থেকে না ফেরার নির্দেশনা

মেগা প্রকল্প পদ্মা সেতুর কাজে চীনের প্রায় এক হাজার ১০০ প্রকৌশলী ও শ্রমিক নিয়োজিত রয়েছেন। তারা চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি (এমবিইসি) ও সিনো হাইড্রো করপোরেশনে অধীনে কাজ করছেন। গত ২৫ জানুয়ারি চীনা নববর্ষ উপলক্ষে প্রায় দুই শতাধিক প্রকৌশলী ও শ্রমিক ছুটি কাটাতে দেশটিতে যান। করোনাভাইরাসে আক্রান্তের ভয়াবহতা বাড়তে থাকায় তাদের আপাতত বাংলাদেশে না ফেরার পরামর্শ দিয়েছে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান।

পদ্মা সেতু কর্তৃপক্ষ ও সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান সূত্র বিষয় নিশ্চিত করেছে।

সূত্র জানায়, ২২ জানুয়ারির পর চীন থেকে কোনো শ্রমিক-প্রকৌশলীকে পদ্মা সেতুতে আসতে দেওয়া হয়নি। তবে এর আগে দুই সপ্তাহে ২২ প্রকৌশলী-শ্রমিক এসেছেন। তাদের প্রকল্প এলাকায় পৃথকস্থানে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। মুন্সিগঞ্জ স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে জেলায় কর্মরত চীনাদের স্বাস্থ্য পর্যবেক্ষণে একটি ফর্ম পাঠানোর পরিকল্পনা রয়েছে।

মঙ্গলবার (২৮ জানুয়ারি) পদ্মা সেতুতে করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সচেতনতামূলক সভা হয়েছে। সূত্রে জানা গেছে, পদ্মা সেতুতে যেসব চীনা শ্রমিক কর্মরত রয়েছেন, তাদের কেউই করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সিন্ড্রোম নেই। যারা ছুটিতে চীনে রয়েছেন, তাদের আপাতত সেখানেই থাকতে বলা হয়েছে। পদ্মা প্রকল্পে সার্বক্ষণিক একটি স্বয়ংসম্পূর্ণ মেডিকেল ইউনিট রয়েছে।

সূত্র আরও জানায়, চীনা শ্রমিকদের সঙ্গে দেশি শ্রমিকরা স্বাভাবিকভাবেই কাজ করছেন কোনো সমস্যা হচ্ছে না। প্রকল্পের কাজে নিয়োজিত সবার মাঝে মাস্ক বিতরণ করা হচ্ছে। দেশি শ্রমিকদের নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে চীনা শ্রমিকদের সঙ্গে কাজ করার পরামর্শও দেওয়া হয়েছে।

আরও