অস্ট্রেলিয়ার রাজধানীতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা

দাবানল সামলাতে অস্ট্রেলিয়ার রাজধানী ক্যানবেরায় জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। শুক্রবার অস্ট্রেলিয়ান ক্যাপিটাল টেরিটোরি (এসিটি) কর্তৃপক্ষ এক ঘোষণায় এমনটি জানিয়েছে। বলেছে, প্রায় দুই দশকের মধ্যে সবচেয়ে ভয়ানক দাবানলের সম্মুখীন অঞ্চলটি। সবচেয়ে ভয়াবহ দাবানলটি জ্বলছে অঞ্চলটির দক্ষিণাংশে। পুড়ছে ১৮ হাজার ৫০০ হেক্টরের বেশি জমি। ক্যানবেরার শহরতলীগুলোর বাসিন্দাদের যেকোনো সময় সরে যাওয়ার জন্য প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে। এ খবর দিয়েছে বিবিসি।

এসিটির মুখ্যমন্ত্রী অ্যান্ড্রিও বার শুক্রবার সাংবাদিকদের বলেন, ২০০৩ সালের বিধ্বংসী আগুনের পর সবচেয়ে ভয়াবহ দাবানলের সম্মুখীন এসিটি। বর্তমানে এসিটি সরকারের সবচেয়ে বড় অগ্রাধিকার হচ্ছে এই দাবানল সামলানো।
প্রসঙ্গত, এসিটি হচ্ছে সিডনী ও মেলবোর্নের মধ্যে অবস্থিত ছোট একটি ভুখণ্ড।

সেখানে প্রায় ৪ লাখ বাসিন্দার বসবাস। ২০০৩ সালে ক্যানবেরার শহরতলীগুলোয় দাবানলের শিকার হয়ে প্রাণ হারান চার জন, আহত হন আরো ৫০০। এ ছাড়া, পুড়ে যায় ৪৭০টি বাড়ি। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, শুক্রবার সে সময়কার মতো একই ধরনের আবহাওয়া পরিলক্ষিত করা গেছে।

বার সতর্ক করে বলেছেন, দাবানলগুলো নিয়ন্ত্রণ নাও করা যেতে পারে। কেননা, ঝড়ো হাওয়ায় তা ফুসে ওঠছে ও তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত বৃদ্ধি পেয়েছে। তিনি আরো বলেন, জরুরি অবস্থা জারি করায় দমকল কর্তৃপক্ষ আগুন নিয়ন্ত্রণে বেশি ক্ষমতা পাবে। যতক্ষণ ক্যানবেরা হুমকির মুখে থাকবে, ততক্ষণ এই জরুরি অবস্থা জারি থাকবে।
উল্লেখ্য, ক্যানবেরায় কয়েক সপ্তাহ ধরেই দাবানল জ্বলে চলেছে। গত বৃহস্পতিবার দাবানল বেশি নিকটে চলে আসায় শহরটির বিমানবন্দর সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেয়া হয়।

আরও