ফেনসিডিল দিয়ে মানচিত্র বানিয়ে সমালোচনায় বিজিবি

বাংলাদেশের কুষ্টিয়ায় বর্ডার গার্ড জব্দ করা ফেন্সিডিল নামের মাদকের বোতল দিয়ে বাংলাদেশের মানচিত্র বানানোর এক ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পর তা নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক আর সমালোচনা।

কুষ্টিয়ার মিরপুরে মঙ্গলবার (৪ফেব্রুয়ারি) বিজিবি একটি অনুষ্ঠান আয়োজন করে, যেখানে গত কিছুদিনে বিজিবি’র জব্দকৃত মাদকদ্রব্য ধ্বংস করা হয়। ঐ অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রদর্শনীর উদ্দেশ্যে জব্দকৃত সব ধরণের মাদকদ্রব্য একসাথে সাজিয়ে রাখা হয়।

সেখানে বাংলাদেশের ম্যাপের আদলে একটি প্রতিকৃতি তৈরি করা হয়, যেটি তৈরি করা হয় ফেন্সিডিলের বোতল দিয়ে।

ফেন্সিডিলের বোতল দিয়ে তৈরি করা মানচিত্রের ছবিটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ার পর সেটি নিয়ে তৈরি হয়েছে সমালোচনা।

সমালোচনাকারীদের অনেকের মতে, ফেন্সিডিলের বোতল দিয়ে দেশের ম্যাপ তৈরি করায় বাংলাদেশের মানচিত্রকে অপমান করা হয়েছে ।

আবার কারো কারো মতে, মাদক ধ্বংস কার্যক্রমের মত একটি অনুষ্ঠানের গুরুত্বকে খর্ব করে বিষয়টিকে হাস্যরসের বস্তু হিসেবে উপস্থাপন করেছে।

সমালোচনাকারীদের অনেকের মতে, ফেন্সিডিলের বোতল দিয়ে বাংলাদেশের মানচিত্র তৈরি করায় অপমান করা হয়েছে বাংলাদেশের মানচিত্রকে

তারা বলেন, এটা বিজিবি’র মত একটি সংস্থার কাছ থেকে কাম্য নয়।

বিজিবি কী বলছে? বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের যেই বিভাগ অনুষ্ঠানটির আয়োজক ছিল, তারা অবশ্য বিশেষ কোনো উদ্দেশ্য নিয়ে মানচিত্র তৈরির মত কাজ করেনি বলে জানিয়েছে।

আয়োজকরা বলছেন, বাংলাদেশের সব অঞ্চলে মাদকের বিস্তারের বিষয়টি তুলে ধরতেই প্রতীকী এই মানচিত্র তৈরি করেছিলেন তারা।

একই সাথে দেশের সব এলাকায় মাদক নির্মূলে বিজিবি’র ভূমিকা তুলে ধরাটাও এর একটি উদ্দেশ্য ছিল বলে বিবিসি বাংলাকে জানান আয়োজকরা।

ফেন্সিডিল দিয়ে তৈরি মানচিত্রের মত জব্দ করা অন্যান্য মাদকদ্রব্যও প্রদর্শনের উদ্দেশ্যে সাজিয়ে রাখা হয় অনুষ্ঠানের শুরুতে। পরে নির্দিষ্ট জায়গায় নিয়ে গিয়ে সেগুলো ধ্বংস করা হয়। সূত্র বিবিসি

আরও