নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ অগ্নিকাণ্ড মায়ের পর চলে গেলেন দগ্ধ ছেলে

নিউজ ডেস্ক::নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের সাহেবপাড়া এলাকায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় এই নিয়ে দুইজনের মৃত্যু হলো। মৃত ব্যক্তির নাম কিরণ মিয়া (৫০)। কিরণের শরীরের ৭০ শতাংশ পোড়া ছিলো।

সোমবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) সোমবার রাত ১২টার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় কিরণের।

এর আগে বেলা সোয়া ১১টার দিকে ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় কিরণের মা নুরজাহান বেগমের (৬০) মৃত্যু হয়।

নিহতের বোনজামাই মোহাম্মদ ইলিয়াস বলেন, সোমবার ভোরে বাসার চুলা জ্বালানোর সঙ্গে সঙ্গে চার রুমে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। এতে হিরণ ও তার স্ত্রী মুক্তা এবং তাদের মেয়ে লিজাসহ আটজন দগ্ধ হয়। পরে তাদের দ্রুত উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন সোমবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় কিরণের মা নুরজাহানের মৃত্যু হয়। রাত ১২টার দিকে মৃত্যু হয় কিরণের। বাকি দগ্ধ ছয়জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (ইন্সপেক্টর) বাচ্চু মিয়া তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সোমবার রাতে কিরণের মৃত্যু হয়। তার মরদেহ ময়নাতদন্তের মর্গে রয়েছে।

 

আরও