সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা চালু করা হবে

 প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন বলেছেন, শিক্ষার মূল ভিত্তি হচ্ছে প্রাথমিক শিক্ষা। সরকার সারাদেশে সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা চালু করার উদ্যোগ নিয়েছে। তাই বর্তমান সরকার শতভাগ শিক্ষার্থীর প্রাথমিক শিক্ষা নিশ্চিত করনে সকল শিক্ষার্থীদের দুপুরের খাবার ও পোষাকের ব্যবস্থাসহ যুগোপযোগী বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়নের উদ্যোগ নিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারণেই বছরের প্রথম দিন দেশের সকল শিক্ষার্থীর হাতে বিনামূল্যে নতুন বই উপহার দেওয়া সম্ভব হচ্ছে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার বাইমহাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে মানসম্মত প্রাথমিক শিক্ষা অর্জনে সচেতনতামূলক মতবিনিময় সভা ও মা সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, দেশের সকল কিন্ডার গার্টেন ভবিষ্যতে থাকবে না। এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এইচএসসি পাশ ছাত্ররা টাই পড়ে নিজেদের প্রিন্সিপাল পরিচয় দিয়ে থাকে। আর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা এমএ পাশ বিএ পাশ। কিন্ডার গার্টেনগুলো প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বই পড়াচ্ছে। তারা অতিরিক্ত বইয়ের বোঁঝা দিয়ে শিক্ষার্থীদের মেরুদণ্ড ভেঙ্গে দিচ্ছে। আমরা প্রাথমিক শিক্ষায় বইয়ের বোঁঝা কমিয়ে আনার চেষ্টা করছি।

টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক মো. শহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে সভায় বক্তৃতা করেন টাঙ্গাইল-২ আসনের এমপি তানভীর হোসেন ছোট মনি, প্রাথমিক শিক্ষা দপ্তরের ঢাকা বিভাগীয় উপ-পরিচালক ইফতেখার হোসেন ভূঁইয়া, মির্জাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল মালেক, টাঙ্গাইল জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুল আজিজ, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা হোসনে আরা বেগম।

এর আগে অতিথিবৃন্দ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক গীতি নৃত্য নাট্য ও শারীরিক কসরত উপভোগ করেন।

সকালে প্রতিমন্ত্রী বাইমহাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাঠদান পর্যবেক্ষণ ও উন্নয়ন কার্যক্রম পরিদর্শন করেন।

 

আরও