করোনাভাইরাস আতঙ্কে ইসরাইল

 দক্ষিণ কোরিয়ার করোনাভাইরাস আক্রান্ত পর্যটকদের কাছাকাছি থাকার পর প্রায় ২০০ শিক্ষার্থীকে বাড়িতে কোয়ারিন্টাইনে থাকার নির্দেশ দিয়েছে দখলদার ইসরাইল।

কাজেই এই হুমকি মোকাবেলায় একটি টাস্কফোর্স গঠনের ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী বেনইয়ামিন নেতানিয়াহু।

রোববার কভিড-১৯ ভাইরাসের হুমকি নিয়ে এক বিশেষ বৈঠকের পর তিনি বলেন, এই বড় ধরনের প্রতিকূলতাটি মোকাবেলায় মন্ত্রীদের একটি দলকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।-খবর এএফপি

গত ৮ থেকে ১৫ ফেব্রুয়ারি দক্ষিণ কোরিয়ার একটি গির্জার সদস্যরা বিভিন্ন ইসরাইলি স্থপনা পরিদর্শন করেন। তাদের মধ্যে ১৮ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর নিজ দেশে ফিরে যান।

এসব পর্যটকদের সংস্পর্শে আসা শিক্ষার্থীদের বাড়িতে সবার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে থাকতে বলা হয়েছে। যাদের মধ্যে বিভিন্ন স্কুলের ১৮০ শিক্ষার্থী, ১৮ শিক্ষক ও একজন প্রহরী রয়েছেন। তারা কোরীয় পর্যটকদের ঘনিষ্ঠ সংস্পর্শে গিয়েছিলেন।

অবৈধ রাষ্ট্রটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বলছে, কেউ এসব পর্যটকদের সংস্পর্শে গেলে তারা যেন নিজেদের বাড়িতে ১৪ দিন পর্যন্ত কোয়ারেন্টাইন অবস্থায় থাকেন।

গত শুক্রবার ইসরাইলে প্রথম কোনো করোনাভাইরাস রোগী শনাক্ত হয়। তিনি জাপানের প্রমোদতরী থেকে দেশে ফেরত যাওয়ার পর তার শরীরে এই ভাইরাস ধরা পড়ে।

শনিবার দক্ষিণ কোরিয়া থেকে যাওয়া ২০০ অ-ইসরাইলি পর্যটককে বিমান থেকে নামতে অনুমতি দেয়া হয়নি। এছাড়া সম্প্রতি কেউ জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, চীন, হংকং, ম্যাকাউ, সিঙ্গাপুর ও থাইল্যান্ড ভ্রমণে গেলে তাদের ১৪ দিনের কোয়ারিন্টাইন আবশ্যিক করে দিয়েছে ইসরাইল।

দেশটির নিরাপত্তা বিষয়কমন্ত্রী গিলাদ আরডেন হুশিয়ারি দিয়ে বলেন, কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ কেউ অমান্য করলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

আরও