শ্বশুরের দাবি শ্বাসরোধে হত্যা, জামাই বলছেন সড়ক দুর্ঘটনা

জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলায় পারিবারিক কলহের জের ধরে স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রী মোর্শেদা বেগমকে (৩২) শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার নিহতের বাবা বাদী হয়ে দেওয়ানগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা করেছেন। পরে অভিযুক্ত স্বামী শহিদুর রাহমানকে (৪০) গ্রেফতার করে পুলিশ।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, উপজেলার পাইকপাড়া গ্রামের শহিদুর রহমানের সঙ্গে ১৫ বছর আগে একই উপজেলার দক্ষিণ ভাতখাওয়া গ্রামের মমতাজ আলীর মেয়ে মোর্শেদা বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের পর স্বামী শহিদুর রহমানের সঙ্গে বিভিন্ন মেয়ের পরকীয়ার বিষয়টি জানতে পারেন স্ত্রী মোর্শেদা। এরপর থেকে স্বামীর পরকীয়া নিয়ে তাদের মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া-বিবাদ হতো।

বুধবার রাতে দক্ষিণ ভাতখাওয়ার শ্বশুরবাড়ি থেকে স্বামী শহিদুর রহমান তার স্ত্রী মোর্শেদা বেগমকে মোটরসাইকেল করে নিজ বাড়ি পাইকপাড়ায় নিয়ে যাচ্ছিলেন। মোর্শেদার বাড়ি থেকে এক কিলোমিটার যাওয়ার পর উত্তর ভাতখাওয়া এলাকায় একটি নির্জন স্থানে রাস্তার পাশে ধানক্ষেতে মোর্শেদাকে শ্বাসরোধে হত্যা করেন স্বামী। তবে শহিদুর রহমানের দাবি মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় মারা গেছেন স্ত্রী মোর্শেদা।

দেওয়ানগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এম এম ময়নুল ইসলাম বলেন, ঘটনার পর রাতেই মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে স্বামী শহিদুর রহমানকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়া গেলে মৃত্যুর আসল কারণ জানা যাবে।

 

আরও