বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি প্রত্যাহারের আহ্বান ওয়ার্কার্স পার্টির

 বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে ওয়ার্কার্স পার্টি। শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে দলটির ঢাকা মহানগরের উদ্যোগে এ বিক্ষোভ কর্মসূচি পালিত হয়। ওয়ার্কার্স পার্টির ঢাকা মহানগরের সভাপতি আবুল হোসাইনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক কিশোর রায়ের সঞ্চালনায় বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরো সদস্য ড. সুশান্ত দাস।

বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির ঘোষণাকে যুক্তিহীন ও একপেশে বলে অভিহিত করে ড. সুশান্ত দাস তা প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিআরসি) দফায় দফায় গণশুনানিতে বিদ্যুৎ ভোক্তাদের পক্ষ থেকে বিদ্যুতের মূল্য কমানোর পক্ষে অত্যন্ত যুক্তিসঙ্গতভাবে যে তথ্য-উপাত্ত উপস্থাপন করা হয়েছিল, তা কোনোভাবেই খন্ডন করতে পারেনি বিআরসি কর্তৃপক্ষ।

তিনি বলেন, কিন্তু ভোক্তাদের সব যুক্তিকে অগ্রাহ্য করে বিআরসি গ্রাহক পর্যায়ে ৫ দশমিক ৩ শতাংশ বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি করেছে। বিদ্যুতের আরেক দফা এই মূল্যবৃদ্ধি সাধারণ ভোক্তাদের উপর যেমন আর্থিক চাপ তৈরি করবে, তেমনি উৎপাদিত পণ্যের মূল্যও বেড়ে যাবে। বিশেষ করে দৈনন্দিন জীবনযাত্রার ব্যয় ও নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম বাড়বে। যা সামগ্রিক অর্থনীতিতে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করে জনজীবনের সঙ্কট আরও বৃদ্ধি করবে।

বিক্ষোভ সমাবেশে ওয়ার্কার্স পার্টির নেতারা বলেন, বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর ফলে শিল্প উৎপাদন, বিশেষ করে পোশাক খাত ভয়াবহ ক্ষতির মুখে পড়বে। কলকারখানা বন্ধ হয়ে যাবে। বাধাগ্রস্ত হবে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি। এই অযৌক্তিক বিদ্যুতের মুল্যবৃদ্ধি সরকারকে অবিলম্বে প্রত্যাহার করতে হবে।

সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন অ্যাডভোকেট জোবায়দা পারভিন, বেনজির আহমেদ, জাহাঙ্গীর আলম ফজলু, মুর্শিদা আখতার নাহার, নাসিমুল আহসান দীপু, শিউলী শিকদার, তাপস দাস, তাপস কুমার রায়, ওমর ফারুক সুমন প্রমুখ।

 

আরও