দিল্লিতে এত মানুষের প্রাণ গেল কেন; জবাব দিন, শাহকে নিশানা অভিষেকের

 সিএএ বিরোধিতায় তোলপাড় রাজধানী। রবিবারও আরও দুটি মৃতদেহ উদ্ধার হয়েছে গোকুলপুরী থেকে। এরকম অবস্থায় শহীদ মিনারের সভা থেকে সিএএর পক্ষেই জোর সওয়াল করলেন অমিত শাহ। পাল্টা বিঁধলেন তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

শহীদ মিনারে বিজেপির সভা থেকে অমিত শাহ বলেন, মমতা দেশের আইনের বিরোধিতা করছেন। মোদীজি সিএএ এনেছেন। পাকিস্তান, বাংলাদেশ,আফগানিস্থানের সংখ্যালঘুদের এদেশের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। মমতাকে প্রশ্ন করতে চাই, ওইসব দেশ থেকে আসা শরনার্থীদের কেন আপন মনে হয় না আপনার? কেন অনুপ্রবেশকারীদেরই আপনার আপন বলে মনে হয়? সাফ বলছি, শরনার্থীদের নাগরিকত্ব দিয়েই ছাড়ব। মমতা আমাদের রুখতে পারবেন না। আপনি সিএএ-র বিরোধিতা করছেন মানে হরিচাঁদ ঠাকুর, গুরুচাঁদ ঠাকুরের বিরোধিতা করছেন। সত্তর বছর ধরে সমস্যায় থাকা এইসব মানুষদের নাগরিকত্ব দিয়েই ছাড়ব।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এদিন তাঁর বক্তব্যে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কও নিশান করেন। বলেন, এবার বাংলায় আর কোনও শাহাজাদাকে মুখ্যমন্ত্রী হতে দেওয়া যাবে না। বাংলার মাটি থেকেই আমাদের মুখ্যমন্ত্রী হবে। সিএএ আইন হওয়ার পর বাংলায় দাঙ্গা হয়েছে। মমতা করিয়েছেন।

শাহর সভা শেষ হতেই টুইটারে সরব হন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি টুইট করেন, রাজ্যে এসে সরকারকে জ্ঞাণ দেওয়ার পরিবর্তে আপনার ব্যাখা করা উচিত কীভাবে আপনার নাকের ডগায় পঞ্চাশ জনের প্রাণ গেল। মানুষের কাছে এর জন্য ক্ষমা চান। অমিত শাহ, বিজেপির বিভেদ ও ঘৃণা ছড়ানোর রাজনীতি সত্বেও পশ্চিমবঙ্গ ভালো রয়েছে।

 

আরও