যুক্তরাষ্ট্রে করোনা আক্রান্ত ৫শ ছাড়ালো

যুক্তরাষ্ট্রে নতুন করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঘটনা ৫শ ছাড়ালো। এছাড়া স্থানীয় সময় রোববার মৃত্যু হয়েছে আরও দুজনের। এদিকে ক্যালিফোর্নিয়া উপকূলে আটকে রাখা করোনা সংক্রমিত একটি প্রমোদতরীতে আটকা পড়েছেন সাড়ে তিন হাজার মানুষ, বাতিল হয়েছে টেনিসের গুরুতূপূর্ণ একটি ইভেন্ট।

মহামারি প্রতিরোধে তার প্রশাসন যথাযথ পদক্ষেপ নিচ্ছেমার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এমন দাবি করার পর করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির খবর আসলো। স্বাস্থ্যখাতে ব্যয়হ্রাস ও কৌশলগত মারাত্মক কিছু ভুলের কারণে করোনার দ্রুত বিস্তার রোধ করা যাচ্ছে না, এমন সমালোচনার পর তিনি এ মন্তব্য করেন।

বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে অনুযায়ী, ইতোমধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের ৫০টি অঙ্গরাজ্যের মধ্যে ৩০টিতেই করোনাভাইরাস বিস্তার লাভ করেছে। সর্বশেষ অঙ্গরাজ্য হিসেবে ওরেগন জরুরি অবস্থা জারি করেছে। এদিকে ক্যালিফোর্নিয়া ও নিউইয়র্কের ৬ কোটি মানুষ এখন সংকটকালীন পদক্ষেপের মধ্যে রয়েছেন।

রোববার সিয়াটলের পাশে করোনাভাইরাস কবলিত একটি কেয়ার হোমের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট আরও দজুনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে করোনা সংক্রমিত হয়ে মৃত্যুর সংখা দাঁড়িয়েছে ২২ জনে। জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের দেওয়া হিসাব অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রে এখন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৫৫৪ জন।

নতুন করে পেনিসিলভানিয়, ইলিনয়স, ম্যাসাচুসেটস, কানেক্টিকাট এবং নিউ জার্সি অঙ্গরাজ্যে করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। এদিকে সান ফ্রান্সিসকোকে আটকে থাকা প্রমোদতরীরে যাত্রীদের স্ক্রিনিংয়ের জন্য তার উদ্দেশে যাত্রা শুরু করেছেন স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা।

দ্য গ্রান্ড প্রিন্স নামের ওই প্রমোদতরীর ৩ হাজার ৫০০ যাত্রীর মধ্যে ২১ জনকে করোনাভাইরাস পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে। সোমবারের মধ্যে অকল্যান্ডের কাছে প্রমোদতরীটি নোঙ্গর করার কথা রয়েছে। এদিকে মার্কিন নাগরিকদের প্রমোদতরীতে ভ্রমণ না করার পরামর্শ দিয়েছে পররাষ্ট্র দফতর।

চীনের উহান শহর থেকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে লক্ষাধিক মানুষ এখন আক্রান্ত। শতাধিক দেশে বিস্তার লাভ করা কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারানো মানুষের সংখ্যা এখন ৩ হাজার ৮১৬ জন। চীনের পর ৩৬৬ মত্যৃ নিয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ অবস্থানে আছে ইতালি। ইরানে মৃতের সংখ্যা ১৯৪।

আরও