তেলের দাম না কমিয়ে কংগ্রেস সরকারকে ফেলতে ব্যস্ত মোদি, কটাক্ষ রাহুলের

ফের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে বিঁধলেন কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী। আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম কমেছে। তাই দেশেও তেল দাম কমানো উচিত বলে সওয়াল করেছেন রাহুল। এরপরই টুইটারে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরকে উদ্দেশ্য করে রাহুল লেখেন, বিশ্বের বাজারে কমতে থাকা তেলের দাম থেকে নজর ঘোরাতেই নির্বাচিত কংগ্রেস সরকারকে ক্ষমতা থেকে সরাতে ব্যস্ত প্রধানমন্ত্রী।

বুধবার সকালের এক টুইটে রাহুল লেখেন, আপনি (নরেন্দ্র মোদি) তো নির্বাচিত কংগ্রেস সরকারকে সরাতে ব্যস্ত ছিলেন, এই সময়ের মধ্যে আপনার পক্ষে গোটা বিশ্বে তেলের দাম যে ৩৫% কমেছে, সেই বিষয়টি লক্ষ্য না করা সম্ভব হয়নি। একইসঙ্গে তিনি লেখেন, আপনি কি দয়া করে পেট্রোলের দাম লিটার পিছু ৬০ টাকার কম দামে বিক্রি করার কথা ঘোষণা করে ভারতীয়দের উপকার করতে পারেন? এটা করলে তবেই দেশের ধুঁকতে থাকা অর্থনীতি একটু হলেও গতি পাবে। রাজনৈতিক মহলের মতে, মধ্যপ্রদেশের নির্বাচিত কংগ্রেস সরকারকে সরিয়ে নিজেদের সরকার গড়তে মরিয়া বিজেপি। ইতিমধ্যে জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া কংগ্রেস ছেড়েছেন। তার সঙ্গে বেশকিছু বিধায়কও দল ছেড়েছেন। বুধবারই তাঁদের বিজেপিতে যোগ দেওয়ার কথা। এরপরই আস্থা ভোটে কংগ্রেসকে হারাতে চাইছে বিজেপি। সেই কাজেই প্রধানমন্ত্রী ব্যস্ত রয়েছেন বলে ঘুরিয়ে কটাক্ষ করলেন রাহুল।
Rahul Gandhi, Congress tweets on political situation in Madhya Pradesh. pic.twitter.com/wpnzsgco40 ANI (@ANI) March 11, 2020
প্রসঙ্গত, ওপেক ও অ্যালায়েন্স জোট ভেঙে গিয়েছে। তারপর থেকেই সৌদি আরব ও রাশিয়ার মধ্যে দ্বন্দ্ব চলাকালীনই এই সপ্তাহের শুরুতে বিশ্ব বাজারে তেলের দাম ৩০ শতাংশেরও বেশি কমে যায়।বিশ্বব্যাপী তেলের দাম প্রতি ব্যারেল হিসাবে ৩১.০২ ডলারে নেমে গিয়েছে। বুধবার দিল্লিতে পেট্রলের দাম কমেছে ২.৬৯ টাকা। ডিজেলের দাম কমেছে ২.৩৩ টাকা। তেলের দাম কমেছে কলকাতাতেও। বুধবার কলকাতায় পেট্রলের দাম প্রতি লিটার ৭২.৯৮ টাকা ও ডিজেলের দাম লিটারপিছু ৬৫.৩৪ টাকা হয়েছে।

 

আরও