স্পেনে ৮ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত

 স্পেনে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৮ বাংলাদেশি। আটজনই হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। তাদের মধ্যে স্বামী-স্ত্রী দুজনকে রাখা হয়েছে আইসিইউতে। মাদ্রিদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের উপ-প্রধান ও মিনিস্টার পলিটিক্যাল হারুন আল রশিদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এদিকে বাংলাদেশি মানবাধিকার সংস্থা ভালিয়েন্তে বাংলার সভাপতি মো. ফজলে এলাহী গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন- আক্রান্তদের তিনজনের বাড়ি সিলেটে, একজনের বয়স ৪৫, আরেকজনের ৪৩ এবং অপরজন নারী ৩৫ বছর বয়সী। তারা দেশটির রাজধানী মাদ্রিদের বাঙালি অধ্যুষিত লাভাপিয়েসে থাকেন। তবে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আইসিইউতে থাকা স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে স্বামীর বয়স ৩৭ ও স্ত্রীর ২৬। তাদের দুই মাসের এক সন্তানকে হাসপাতাল হেফাজতে রাখা হয়েছে।

তারা দেশটির রাজধানী মাদ্রিদের অদূরে কারাবানচলে থাকেন।

করোনায় আক্রান্ত অপর দুজন তরুণ। এরমধ্যে ২৫ বছর বয়সী একজনের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়। অপরজনের বাড়ির ঠিকানা জানা যায়নি। তারা দুজনই রাজধানী মাদ্রিদে দীর্ঘদিন থেকে বসবাসরত। দেশটির রাজধানী মাদ্রিদসহ বিভিন্ন শহরে এরইমধ্যে করোনার প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। ইতিমধ্যে রাজধানী মাদ্রিদ, বার্সেলোনাসহ বেশ কয়েকটি প্রদেশে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ অফিস আদালত বন্ধ হয়ে গেছে। এমনকি বাঙালি অধ্যুষিত লাভাপিয়েসের বাঙালি পরিচালনাধীন বায়তুল মোকাররম বাংলাদেশ মসজিদে জুমার নামাজও হয়নি। যানবাহন ও চলাফেরা নিয়ন্ত্রণে আনতে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে আতঙ্কিত স্প্যানিশ নাগরিকসহ প্রবাসী বাংলাদেশিরা। প্রসঙ্গত, স্পেনে এখন পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে ৮৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত হয়েছেন তিন হাজার ৩ জন। এর মধ্যে ১৮৯ জন সুস্থ হয়েছেন।

ওদিকে, ম্রাদিদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছ, বাংলাদেশি কমিউনিটির বেশ কয়েকজন নেতা জানিয়েছেন যে, এখানে আমাদের মধ্যে ৮ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আমরা সংবাদপত্রেও একই খবর দেখেছি। এ সমপর্কে আমরা আরো তথ্য সংগ্রহের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। যাইহোক, আমাদের বলা হয়েছে যে, আক্রান্ত ব্যক্তিরা তাদের পরিচয় গোপন রাখতে চান এবং তারা তাদের পরিচয় প্রকাশে অনিচ্ছুক। তাই তাদের কারো নাম আমাদের কাছে প্রকাশ করা হয়নি। আমরা ইতিমধ্যে এখানে বাংলাদেশিদের জন্য হটলাইন সেবা (+৩৪৬৭১১৯৬৯৯২) চালু করেছি। এর মাধ্যমে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে কেউ আক্রান্ত হলে আমাদের কাছে তথ্য পৌঁছে যাবে। এখন পর্যন্ত এ হটলাইনে কেউ কোনো তথ্য দেয়নি। আমরা আক্রান্ত বাংলাদেশি ও তার আত্মীয়দের অনুরোধ করছি যাতে তারা আমাদের সঙ্গে ওই হটলাইন নাম্বার ব্যবহার করে যোগাযোগ করেন।

এছাড়া, ফেসবুকে আমরা পূর্ব সতর্কতামূলক সকল নোটিশ প্রচার করে যাচ্ছি। সেপনে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ভয়াবহ। এরমধ্যে সবথেকে ভয়াবহ অবস্থা রাজধানী মাদ্রিদের। এমন অবস্থায় আমরা সকল বাংলাদেশিদের আহবান জানাচ্ছি যাতে তারা করোনা মোকাবিলায় সেপন সরকার ঘোষিত নির্দেশিকা অনুসরণ করে চলেন। আমরা সকলের সুরক্ষা কামনা করছি।

 

আরও