৩১ মার্চ পর্যন্ত ভিন রাজ্য থেকে বাংলায় বাস ঢোকা বন্ধ করল রাজ্য সরকার

পশ্চিমবঙ্গের বাইরে থেকে আসা ট্রেন বন্ধের অনুরোধে রেলমন্ত্রকে চিঠি দিয়েছে রাজ্য সরকার। এবার ভিন রাজ্য থেকে আসা বাস পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হল। শনিবার মধ্যরাত থেকে আর ভিন রাজ্যের বাস ঢুকতে দেওয়া হবে না বাংলায়।

পরিবহণ দফতরের সচিব বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানিয়ে দিল, রাজ্যে নভেল ভাইরাস নিয়ে উদ্ভূত পরিস্থিতি বিবেচনা করে ২১ মার্চ (শনিবার) মধ্যরাত থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত ভিন রাজ্যে বাস পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হল। একইভাবে ভিন রাজ্যের বাসগুলিকে ঢুকতে দেওয়া হবে না রাজ্যে। সংশ্লিষ্ট সবপক্ষকে এব্যাপারে উপযুক্ত পদক্ষেপ করতে অনুরোধ করা হচ্ছে।

ভিন রাজ্যে কাজ করেন প্রচুর বাঙালি শ্রমিক। করোনাভাইরাসের জেরে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে সব জায়গাতেই ছুটি দিয়ে দেওয়া হচ্ছে। তাঁরা রাজ্যে ফিরে আসছেন। বিশেষ করে মুম্বই ও পুণে স্টেশনে ভিন রাজ্যের শ্রমিকদের ঢল নেমেছে। শাটডাউনের ঘোষণা করেছে মহারাষ্ট্র সরকার। বিমানবন্দরে তাও নজরদারি করা সম্ভব। কিন্তু ট্রেনে প্রচুর মানুষের মধ্যে কেউ ভাইরাস সংক্রামিত হলে পরিস্থিতি হাতের বাইরে চলে যেতে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। সে কারণে রেলকে চিঠি লিখে আপাতত দূরপাল্লার ট্রেন পরিষেবা বন্ধ রাখার আর্জি করল নবান্ন। চিঠিতে বলা হয়েছে,নভেল করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের জেরে ২২ মার্চ মধ্যরাত থেকে পশ্চিমবঙ্গের বাইরে থেকে আসা ট্রেনগুলি বন্ধ করা হোক। আপাতত তা কার্যকর থাকুক ৩১ মার্চ পর্যন্ত। জমায়েত নিয়ন্ত্রণ ইতিমধ্যেই ব্যবস্থা নিয়েছে রাজ্য সরকার। এব্যাপারে আপনার তরফে সহযোগিতা দরকার।

প্রসঙ্গত, শনিবার মধ্যরাত থেকে রবিবার রাত ১০টা পর্যন্ত বন্ধ থাকবে সমস্ত লোকাল, প্যাসেঞ্জার ও দূরপাল্লার ট্রেন। তবে প্ল্যাটফর্মে ভিড় ও যাত্রী সংখ্যা দেখে বিশেষ লোকাল ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নিতে পারে সংশ্লিষ্ট জোন। শনিবার রেল কর্তৃপক্ষ স্পষ্ট জানাল, কোনও ট্রেনই চলবে না। জরুরি পরিষেবা স্বাভাবিক রাখতে নামমাত্র লোকাল ট্রেন চলবে। সে কারণে যাত্রীদের একান্ত প্রয়োজন না হলে বাইরে না বেরোনোর আবেদন করেছে রেল কর্তৃপক্ষ। শনিবার রাত ১২টা থেকে রবিবার রাত ১০টা পর্যন্ত কোনও দূরপাল্লা, প্যাসেঞ্জার ও লোকাল ট্রেন ছাড়বে না। রাত ১২টার আগের ট্রেনগুলি ছাড়বে নির্ধারিত সূচি মেনে। যাত্রাপথে থাকা ট্রেনগুলি সচল থাকবে।

 

আরও