সর্বশেষ

করোনা আতঙ্কে লটারি কেটে কাঠমিস্ত্রি থেকে কোটিপতি শ্রমিক

 করোনাভাইরাসের প্রভাবে চাকরি হারাচ্ছেন অনেকে। অন্যদের মতো কাজ হারিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের কাঠমিস্ত্রি ইজারুলও। কিন্তু একটি লটারির টিকিট তার পুরো জীবনটা পাল্টে দিল। কোটি টাকা জিতে চরম এই দুর্দিনে তৃপ্তির হাসি হাসছেন তিনি।

মহারাষ্ট্র, কেরালা, দিল্লি, উত্তর প্রদেশে দিন দিন করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। সংবাদমাধ্যম জানায়, এতদিন কেরালায় কাজ করছিলেন ইজারুল। তবে করোনার কারণে কাজ চলে গেছে তার। পশ্চিমবঙ্গের মির্জাপুরে তার পরিবারে রয়েছে তিন সন্তান, স্ত্রী ও বৃদ্ধ বাবা-মা। কেরালায় কাজ হারিয়ে বাড়ির উদ্দেশে রওনা দেন তিনি। প্যাসেঞ্জার ট্রেনে করে আসতে হয় তাকে। টাকার অভাবে পাননি কোনো এসি কোচের টিকিট। গত শনিবার পশ্চিমবঙ্গে মির্জাপুরে বাড়িতে ফিরে আসেন তিনি।

বাড়িতে কর্মহীন হয়ে হতাশায় দিন কাটছিল তার। ফলে ভাগ্য পরীক্ষা করতে কাটেন লটারির টিকিট। সেই টিকিটে এই দুর্দিনেও তার জীবনটা পাল্টে গেল। লটারিতে জিতে নিলেন এক কোটি টাকা।

কেরালায় কাঠের কাজ করে ইজারুল প্রতিদিন হাজার থেকে বারোশো রুপি উপার্জন করতেন। তবে কাজ হারিয়ে পরিবারের একমাত্র উপার্জনকারী হিসেবে দুশ্চিন্তায় ছিলেন এই যুবক। সন্তানদের মুখে কী তুলে দেবেন সেটিই ভাবছিলেন। কিন্তু লটারির টিকিটে শুধু তার অভাবই ঘুচল না, রাতারাতি কোটিপতি হয়ে গেলেন।

 

আরও