সর্বশেষ

বেঁচে গেলেন গ্রিন ওয়াটার-১০ লঞ্চের সাড়ে আটশ যাত্রী

মুন্সীগঞ্জের চরকিশোরগঞ্জে মেঘনা নদীর চরে গ্রিন ওয়াটার-১০ নামে ঢাকার সদরঘাট থেকে ছেড়ে আসা চাঁদপুরগামী একটি লঞ্চ জরুরি নোঙর করেছে।

ধারণক্ষমতার দ্বিগুণ যাত্রী বহনের কারণে মেঘনা নদীতে ঢেউয়ের তোড়ে লঞ্চে পানি উঠেপড়ায় তড়িঘড়ি করে লঞ্চটি নদীর চরে নোঙর করেছে চালক। এতে করে প্রাণে রক্ষা পেয়েছে প্রায় সাড়ে আটশ যাত্রী। সোমবার (২৩ মার্চ) রাত সাড়ে আটটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

মুন্সীগঞ্জ সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনিচুর রহমান জানান, অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাই করার কারণে এ ঘটনা ঘটেছে। তবে যাত্রীদের কেউ হতাহত হয়নি। লঞ্চটি নদীর চরে নোঙর করা হয়েছে। এখন অন্য একটি লঞ্চ ঢাকা থেকে রওনা হয়েছে। সেটি এলে যাত্রীদের সেই লঞ্চে করে গন্তব্যে পাঠানো হবে।

নারায়ণগঞ্জের কলাগাছিয়া নৌপুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মোস্তাফিজুর রহমান জানান, লঞ্চের ধারণক্ষমতা প্রায় ৪০০ যাত্রীর। কিন্তু, প্রায় সাড়ে আটশ যাত্রী বোঝাই করে মেঘনা নদীতে আসার পরে লঞ্চটির ডেকে পানি উঠে যায়। চালক তড়িঘড়ি করে লঞ্চটি চরে ভেরাতে সক্ষম হয়। তবে কোনো যাত্রী হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। এখন বিকল্প হিসেবে অন্য লঞ্চের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, যদিও লঞ্চের স্টাফরা দাবি করছে বাল্কহেডের ধাক্কায় লঞ্চে পানি উঠেছে। কিন্তু, প্রাথমিকভাবে আমাদের তা মনে হয়নি। অতিরিক্ত যাত্রীর কারণেই লঞ্চটি ডুবতে বসেছিল।

 

আরও