করোনা থেকে মুক্তির জন্য ২৫ হাজার কোটি টাকা চাওয়া সেই যুবক আটক

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস থেকে বাংলাদেশকে মুক্ত করার জন্য ২৫ হাজার কোটি টাকা চেয়ে ভিডিও বার্তা দেওয়া ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার সেই যুবককে আটক করেছে পুলিশ।

গতকাল শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে নোয়াগাঁও গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে তাকে আটক করে পুলিশ। আটক শ্রাবণ (২৫) উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামের আশিক মিয়ার ছেলে।

জানা গেছে, দুদিন আগে ফেসবুকে শ্রাবণের একটি ভিডিও বার্তা ভাইরাল হয়। সেই ভিডিওতে তিনি নিজেকে বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র দাবি করেন।

ভিডিও বার্তায় শ্রাবণ দাবি করেন, তিনি গবেষণায় পেয়েছেন; কীভাবে বাংলাদেশকে করোনাভাইরাস থেকে মুক্ত করতে পারবেন। শুধু বাংলাদেশ নয়, গোটা বিশ্বকে তিনি করোনাভাইরাস থেকে মুক্ত করতে পারবেন।

তবে বাংলাদেশকে করোনাভাইরাস থেকে মুক্ত করার বিনিময়ে ২৫ হাজার কোটি টাকা এবং বিশ্বকে মুক্ত করার জন্য এক লাখ কোটি টাকা দাবি করেন শ্রাবণ। এটিকে ডিল উল্লেখ করে যোগাযোগ করার জন্য নিজের মুঠোফোন নম্বরও দেন এই যুবক।

শ্রাবণের এই ভিডিও ফেসবুকের বিভিন্ন গ্রুপে ভাইরাল হলে অনেকেই তাকে গ্রেপ্তার করার দাবি জানান পুলিশের কাছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে শুক্রবার রাতে শ্রাবণের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে সরাইল থানা পুলিশ।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সহকারী পুলিশ সুপার (সরাইল সার্কেল) মাসুদ রানা জানান, শ্রাবণকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। কী উদ্দেশ্য নিয়ে সে এই ঘটনা ঘটিয়েছে সেটি খতিয়ে দেখা হবে।

শ্রাবণের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সহকারী পুলিশ সুপার।

 

আরও