ধামইরহাটে কিশোরীকে গণধর্ষণ, আটক ৩

ফেসবুকে আপত্তিকর ছবি ছেড়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে নওগাঁর ধামইরহাটে এক কিশোরীকে (১৬) গণধর্ষণ করা হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িত তিন যুবককে আটক করে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয়রা। শনিবার (২৮ মার্চ) বিকেল ৩টার দিকে উপজেলার আলতাদিঘী শালবন জাতীয় উদ্যানের পশ্চিম পাড়ে এ ঘটনা ঘটে।

আটককৃতরা হলেন- উপজেলার জাহানপুর ইউনিয়নের মঙ্গলবাড়ী হাসপাতাল পাড়ার আনোয়ার হোসেনের ছেলে শরিফুল ইসলাম (১৯), জোবায়দুল হকের ছেলে আব্দুল মমিন (২০) এবং আতোয়ার হোসেনের ছেলে মোল্লা হোসেন (২৪)।

জানা গেছে, নির্যাতিতা ওই কিশোরীর ফেসবুক আইডি থেকে কিছু ছবি সংগ্রহ করে কম্পিউটার দিয়ে এডিটিং করে আপত্তিকর ছবির সাথে যুক্ত করে ওই যুবকরা। পরে ছবিগুলো ফেসবুকে ছেড়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে ওই কিশোরীকে কৌশলে শনিবার বিকেলে আলতাদিঘী শালবন জাতীয় উদ্যানের পশ্চিম পাড়ে শালবনে নিয়ে আসে ৪/৫ জন যুবক। বনের ভেতর তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে তারা।

এক পর্যায়ে মেয়েটির চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন ছুটে আসে। স্থানীয়রা কিশোরীকে উদ্ধার করে এবং তিন ধর্ষককে আটক করে থানা পুলিশে সোপর্দ করে।

ধামইরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শামীম হাসান সরদার বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ আটক তিনজন ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে। বাকি দুজনক আটকের চেষ্টা চলছে। ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। রোববার আদালতের মাধ্যমে তাদের জেল হাজতে পাঠানো হবে।

 

আরও