মৃতের সংখ্যায় চীনকে ছাড়িয়ে গেল যুক্তরাষ্ট্র

 যুক্তরাষ্ট্রে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের তাণ্ডব চীনকেও ছাড়িয়ে গেছে। আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা এ দুই বেলাতেই চীনকে টপকে গেছে যুক্তরাষ্ট্র।

মঙ্গলবার রাত ১টা অবধি আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডো মিটার এ তথ্য দিয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৮০ হাজার ২৭১ জন। মারা গেছেন ৩ হাজার ৫৭৩ জন। এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন ৬ হাজার ২৪১ জন।

আর চীনে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৮১ হাজার ৫১৮ জন। মারা গেছেন ৩ হাজার ৩০৫ জন। এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন ৭৬ হাজার ৫২ জন।

সে হিসাবে আক্রান্তের পর মৃতের সংখ্যায়ও চীনকে পেছনে ফেলেছে যুক্তরাষ্ট্র।

আন্তর্জাতিক গণমধ্যম আল-জাজিরা জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রে করোনা পরিস্থিতি এতোটাই ভয়াবহ রূপ ধারণ করছে যা অকল্পনীয়। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে ১২ হাজার ৭৩০ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন, মারা গেছেন ২৯০ জন। চিকিৎসাধীন প্রায় চার হাজার রোগীর অবস্থা আশঙ্কাজনক।

এমন পরিস্থিতিতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাস সংক্রমণের কেন্দ্রস্থল নিউইয়র্কের গভর্নর।

রাজ্যটিতে করোনার ভয়াবহতা প্রকাশ করতে গিয়ে মঙ্গলবার গভর্নর অ্যান্ড্রু কুয়োমো বলেন, যা ভেবেছিলাম করোনা তার চেয়েও ভয়ঙ্কর ও ছোঁয়াচে। নিউইয়র্কে করোনায় আক্রান্ত হয়ে দেড় হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন আরও ৩৩২ জন। নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন অন্তত ৯ হাজার ২৯৮ জন। সব মিলিয়ে কেবল নিউইয়র্কেই করোনা রোগীর সংখ্যা ৭৫ হাজার ৭৯৫ জনে দাঁড়িয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ডিসেম্বরের শেষদিকে চীনের উহানে উৎপত্তি হয় এই নভেল করোনাভাইরাসের। এখন পর্যন্ত ধারণা সেখানের একটি সামুদ্রিক বাজার থেকে এ ভাইরাসের উৎপত্তি। এরপরই দুই মাসের মধ্যে ভাইরাসটি সারাবিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে। এখন পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী এতে আক্রান্ত হয়েছেন ৮ লাখ ৪১ হাজারের বেশি মানুষ। মারা গেছেন ৪১ হাজার ৪০১ জন।

 

আরও