অনির্দিষ্টকালের জন্য টাঙ্গাইল লকডাউন

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে টাঙ্গাইল জেলা অনির্দিষ্টকালের জন্য লকডাউনের ঘোষণা দিয়েছে জেলা প্রশাসন। মঙ্গলবার (০৭ এপ্রিল) দুপুর ১২টায় সার্কিট হাউসে জেলা প্রশাসনের সমন্বয় সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো. শহীদুল ইসলাম বলেন, মঙ্গলবার বিকেল ৪টা থেকে টাঙ্গাইল জেলা লকডাউন করে দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, টাঙ্গাইল জেলা চারদিক থেকে লকডাউন করে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। অন্যান্য জেলার সঙ্গে টাঙ্গাইলের যেসব সংযোগ সড়ক রয়েছে। এসব সড়ক বন্ধ করে তল্লাশিচৌকি বসানো হবে। একমাত্র রোগী ও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যবাহী যানবাহন ছাড়া কোনো যানবাহন বা লোকজন যাওয়া-আসা করতে পারবেন না।

ডিসি বলেন, টাঙ্গাইলের দক্ষিণে গাজীপুর ও উত্তরে জামালপুর জেলা ইতিমধ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। মাঝখানে রয়েছে টাঙ্গাইল। এই জেলায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। পরবর্তী ঘোষণা না দেয়া পর্যন্ত লকডাউনে থাকবে টাঙ্গাইল।

সভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফজলুর রহমান খান, স্থানীয় এমপি মো. ছানোয়ার হোসেন, সেনাবাহিনীর লে. কর্নেল মোহাম্মদ সোহেল রানা, পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায়, সিভিল সার্জন মো. ওয়াহীদুজ্জামান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. মোশারফ হোসেন খান, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. শহীদ উল্লাহ ও পৌরসভার মেয়র জামিলুর রহমান।

টাঙ্গাইল লকডাউন ঘোষণার পরপরই জেলা প্রশাসন, পুলিশ ও সেনাবাহিনীর কর্মকর্তারা শহরের ব্যস্ততম পার্ক বাজার পরিদর্শন করেন। এ সময় সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কেনাকাটার জন্য পাশের ঈদগাহে কাঁচাবাজার স্থানান্তরের নির্দেশ দেয়া হয়। একই সঙ্গে যারা আইন অমান্য করবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার জন্য পুলিশকে নির্দেশ দেয়া হয়।

 

আরও