নরসিংদীতে করোনা রোগী শনাক্ত, তিন জেলার সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

নরসিংদীর পলাশ উপজেলার পর এবার রায়পুরা উপজেলার পলাশতলী গ্রামে আরও এক ব্যক্তির শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এতে আক্রান্ত ওই ব্যক্তির বাড়ির আশপাশ এলাকা লকডাউন করা হয়েছে। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ওই ব্যক্তি পলাশতলী ইউনিয়নের শাহপুর এলাকার বাসিন্দা। তিনি নারায়ণগঞ্জে একটি ওষুধ কোম্পানিতে কর্মরত ছিলেন।

এনিয়ে জেলায় দুই জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হলো। মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নরসিংদী সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইব্রাহিম টিটন।

এদিকে করোনা মোকাবেলায় গাজীপুর, নারায়ণগঞ্জ ও কিশোরগঞ্জের সঙ্গে সকল ধরনের যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছে জেলা প্রশাসন। সীমান্ত এলাকাগুলোতে বিশেষ চেকপোস্ট বসানো হবে বলেও জানানো হয়। তবে জরুরি সেবা এসবের আওতামুক্ত থাকবে।

নরসিংদী সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে জানা যায়, কয়েকদিন যাবৎ ওষুধ কোম্পানির প্রতিনিধি ওই ব্যক্তি জ্বর, ঠান্ডা ও কাশিতে ভুগছিলেন। গত ৪ এপ্রিল তিনি রায়পুরাতে আসেন। করোনা উপসর্গ দেখা দিলে সোমবার তার নমুনা সংগ্রহ করে আইইডিসিআরএ পাঠায় স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগ। পরীক্ষা শেষে মঙ্গলবার রাতে কোভিড-১৯ পজিটিভ পায় আইইডিসিআর। এ খবর পাওয়ার পরপরই রাত ১১টার দিকে তাকে আইসোলেশনে নেয়ার প্রস্তুতি শুরু করে স্বাস্থ্য বিভাগ। একইসঙ্গে তার পরিবারের সকল সদস্যকে হোম কোয়ারেন্টাইনে নেয়া হয়েছে।

 

আরও