নিউইয়র্কে বেকার ভাতার জন্য ফোন করতে হবে না

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে বেকার ভাতা পাওয়ার জন্য প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ শ্রম বিভাগে ফোন করে হতাশ হচ্ছেন। এখন থেকে তাদের আর ফোন করতে হবে না। আবেদন করার ৩ দিনের মধ্যে শ্রম বিভাগ নিজে ফোন করবে। এজন্য এক হাজার কল সেন্টার কাজ শুরু করেছে।

নিউইয়র্কের গভর্নর অ্যান্ড্রু কুমো বৃহস্পতিবার (৯ এপ্রিল) বিকেলে তার কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে গণমাধ্যমকে এই তথ্য জানান।

কুমো বলেন, আপনি যখন থেকে বেকার হয়েছেন তখন থেকেই ভাতা পাবেন। আমাদের নতুন পদ্ধতি আপনার জন্য কাজ করছে কি-না তা আমাদের জানতে দিন। jessyedwards@me.com এই ই-মেইলে আপনার কথা আমাদের জনান।

বেকার ভাতা আবেদনের সবচেয়ে বড় সমস্যাটি হলো, অনলাইনে বেকার ভাতার জন্য ফাইল করার পরে অনেক আবেদনকারীকে তাদের বিবরণ যাচাইয়ে বিভাগকে ফোন করতে বলা হয়েছিল। জনবলের অপর্যাপ্ততার কারণে লাখ লাখ ফোনের উত্তর দেয়া সম্ভব হয়নি।

নিউইয়র্ক কর্তৃপক্ষ বৃহস্পতিবার জানিয়েছে, এ পর্যন্ত ৮ লাখ ১০ হাজার জন বেকার ভাতার আবেদন করেছে। এর মধ্যে ৬ লাখের আবেদন প্রক্রিয়াজাত করা হয়েছে। দুই লাখেরও বেশি আবেদন এখনও অনিশ্চয়তায় রয়েছে।

নিউইয়র্কে বসবাসকারীদের যারা সাপ্তাহিক বেকার ভাতার জন্য আবেদন করেছেন, তাদের অনেকে শ্রম বিভাগে হাজার বার কল করার কথা জানিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নিউইয়র্ক স্টেট ডিপার্টমেন্ট অব লেবার ডিপার্টমেন্টের ওয়েবসাইটে নতুন আবেদনগুলেঅ সম্পূর্ণরূপে পাওয়া যাবে। বেকার ভাতার সুবিধা এখন ৩৯ সপ্তাহ পর্যন্ত পাওয়া যাবে। বুধবারের আগে ছিল ২৬ সপ্তাহের জন্য। প্রচলিত সুবিধার বাইরে প্রত্যেক আবেদনকারী অতিরিক্ত ছয়শত ডলার পাবেন বলে শ্রম বিভাগ জানিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রে করোনা মহামারির আগে বেকারত্বের হার ছিল শতকরা সাড়ে ৩ ভাগ। এখন হয়েছে ১৩ শতাংশ।

যুক্তরাষ্ট্রে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে একদিনে আরও এক হাজার ৪৪৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৬ হাজার ২৩১ জনে। এদিন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে আরও ২১ হাজার ৭৮৫ জনে।

করোনায় বেশি বিপর্যস্ত যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে জনবহুল নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্য। শুধু নিউইয়র্কে করোনাভাইরাস সংক্রমিত কোভিড-১৯ রোগে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা এখন ১ লাখ ৫০ হাজারের কাছাকাছি। সেখানে করোনায় আক্রান্ত দেড় লক্ষাধিক মানুসের মধ্যে ৬ হাজারের বেশি মারা গেছে।

 

আরও