করোনা আতঙ্কের মধ্যে স্কুলছাত্রীর বিয়ের আয়োজন

 চারদিকে করোনা আতঙ্ক। এরই মধ্যে গোপনে বিয়ের আয়োজন চলছিল নবম শ্রেণির ছাত্রীর। ঘটনাটি জানার পর তাৎক্ষণিক বিয়ে বন্ধ করে বর ও কনে পক্ষকে জরিমানা করেন সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাজিয়া আফরিন।

জানা গেছে, দেবহাটার পারুলিয়া বালিকা বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রীর সঙ্গে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার আবু সাঈদের গোপনে বিয়ের আয়োজন করা হয়। শুক্রবার দুপুরে পারুলিয়া বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন এলাকায় ওই স্কুলছাত্রীর বাড়িতে শুরু হয় বিয়ের অনুষ্ঠান।

দেবহাটা থানা পুলিশের ওসি বিপ্লব কুমার সাহা বলেন, পুলিশের কাছে সংবাদ আসে গোপনে স্কুলছাত্রীর বিয়ের আয়োজন করা হয়েছে। পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। প্রথমে ছেলে ও মেয়ে পক্ষের পরিবার বিষয়টি অস্বীকার করে। পরে বিয়ের বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে ইউএনওকে জানানো হয়।

দেবহাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাজিয়া আফরিন বলেন, করোনা দুর্যোগকালীন স্কুলছাত্রীর বিয়ের আয়োজন দুঃখজনক। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার মাধ্যমে বাল্যবিয়ে নিরোধ আইনে মেয়ে পক্ষকে ১০ হাজার ও ছেলে পক্ষকে সাত হাজার টাকা জরিমানা করে বিয়ে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

 

আরও