ইতালিতে লকডাউনের সময় বাড়ল ৩ মে পর্যন্ত

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে একমাসেরও বেশি সময় ধরে লকডাউন চলছে ইতালিতে। মানুষজন চলাচলের ওপর দেয়া হয়েছে কড়া নিষেধাজ্ঞা। প্রাণঘাতী ভাইরাসের বিস্তার রোধে লকডাউনের সময়সীমা আগামী ৩ মে পর্যন্ত বাড়িয়েছে দেশটি। শুক্রবার ইতালীয় প্রধানমন্ত্রী জিউসেপ কোঁতে এ ঘোষণা দিয়েছেন।

তিনি বলেন, আমরা যদি এখনই (লকডাউন) ছেড়ে দেই তাহলে এ পর্যন্ত অর্জিত সব ইতিবাচক ফলাফল ঝুঁকিতে পড়বে এবং নতুন মৃত্যুর হার আবারও বাড়তে পারে।

গত ২০ ফেব্রুয়ারি প্রথমবার করোনা রোগী শনাক্ত হয় ইতালিতে। মাত্র দেড় মাসের মধ্যেই রীতিমতো মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে দেশটি। সারাবিশ্বের মধ্যে করোনায় সবচেয়ে বেশি মানুষ মারা গেছেন সেখানেই।

ইতালিতে এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১৮ হাজার ৮৪৯ জন। শুক্রবারও প্রাণ হারিয়েছেন ৫৭০ জন। এদিন দৈনিক মৃত্যুহার বৃদ্ধির পরিমাণ ছিল ৩ দশমিক ১ শতাংশ, যা মহামারি শুরুর পর থেকে সবচেয়ে কম।

মূলত কড়া নিষেধাজ্ঞার ফল এপ্রিলের শুরু থেকেই পেতে শুরু করেছে দেশটি। মার্চে ভয়াবহ বিপর্যয়ের পর এ মাসের শুরু থেকেই সংক্রমণের হার কমতে শুরু করেছে। এক সপ্তাহ আগেও ইতালিতে যেখানে চার হাজারের বেশি মানুষ আইসিউতে চিকিৎসাধীন ছিলেন, শুক্রবার সেই সংখ্যা নেমে এসেছে ৩ হাজার ৪৭৭ জনে।

তবে লকডাউন বা কড়া নিষেধাজ্ঞা শিথিল করলেই এসব সাফল্য ম্লান হয়ে দ্বিতীয় দফায় মহামারি বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা রয়েছে বিশেষজ্ঞদের।

যদিও আপাতত লকডাউন তুলে নেয়ার সম্ভবনা নেই বলেই জানিয়েছেন ইতালীয় প্রধানমন্ত্রী। তবে গৃহবন্দী জনগণকে কিছুটা আশা আলোও দেখিছেন তিনি। বলেছেন, ৩ মের আগে যদি করোনা সংক্রমণের হার একেবারে নিচে নেমে আসে তাহলে পরিস্থিতি বিবেচনা করবে সরকার।

এছাড়া, আগামী ১৪ এপ্রিল থেকে বইয়ের দোকান, শিশুসামগ্রী সরবরাহকারী, কাঠ কোম্পানিগুলোর কার্যকমের ওপর নিষেধাজ্ঞায় কিছুটা ছাড় দেয়া হতে পারে।

 

আরও