ত্রাণের অনিয়ম নিয়ে সংবাদ, বিচার চেয়ে অনশনে ইউপি চেয়ারম্যান

ত্রাণ বিতরণে ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান অনিয়ম করেছেন-এমন অভিযোগে বেসরকারি একটি টেলিভিশন চ্যানেলে সংবাদ প্রচারের প্রতিবাদে অনশন কর্মসূচি পালন করছেন চাঁদপুর সদরের বিষ্ণুপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন খান শামীম। বৃহস্পতিবার দুপুরে সদর উপজেলা পরিষদে অবস্থান নিয়ে তিনি অনশন শুরু করেন।

ওই চেয়ারম্যানের দাবি, যে ত্রাণের চাল নিয়ে অনিয়মের অভিযোগ করা হয়েছে- তা তিনি উত্তোলনই করেননি।

বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় থেকে শুরু হওয়া চেয়ারম্যানের এই অনশন প্রথমে ভাঙতে ব্যর্থ হন সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নাজিম দেওয়ানসহ আরো অনেকে। তবে দুই ঘণ্টা পর প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি এবং রাজনৈতিক নেতাদের অনুরোধে দুপুর দুইটায় তা অনশন ভঙ্গ করেন।

চেয়ারম্যান শামীম খান বলেন, আমার ইউনিয়ন পরিষদে কোনো অনিয়ম দুর্নীতি করলে সেখানে স্থাপিত সিসিটিভি ক্যামেরায় তার প্রমাণ থাকবে। তাই বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখার জন্য জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে দাবি জানাই।

কাঁদতে কাঁদতে চেয়ারম্যান বলেন, ভালো মানুষের সঠিক কথা বলে বাঁচা বড় কষ্ট হয়ে গেছে। অপরাধ না করেও যদি এভাবে অপরাধী হয়ে যাই, তার চেয়ে মরে যাওয়া অনেক ভালো। আমার অপরাধটা কোথায়? কেন আমাকে এভাবে অপদস্ত করা হলো? আমি এর বিচার চাই।

এ বিষয়ে তার বড় ভাই উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল আজিজ খান বাদল বলেন, মিথ্যা অভিযোগ এনে আমার ছোট ভাইকে সমাজ, এলাকা এবং প্রশাসনের কাছে অপদস্ত করা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাণিজ ফাতেমা বলেন, তিনি কষ্ট পেয়েছেন সেজন্য এখানে এসে তার কথাগুলো বলেছেন। তিনি যদি কারও দ্বারা কোন বিষয়ে সংক্ষুব্ধ হয়ে থাকেন তাহলে ব্যবস্থা নেবেন।

 

আরও