প্রয়োজনে ঈদের নামাজও বাড়িতে : সৌদি গ্র্যান্ড মুফতি

 নভেল করোনভাইরাসের জন্য মসজিদে সমাগম বন্ধ করেছে মুসলিম বিশ্বের দেশগুলো। তার মধ্যে অন্যতম সৌদি আরব। বার্তা সংস্থা জানায়, দেশটির গ্র্যান্ড মুফতি শেখ আবদুলআজিজ বিন আবদুল্লাহ আল শেখ বলেছেন, পরিস্থিতির উন্নতি না হলে করোনাভাইরাস সংকটের মধ্যে আসন্ন রোজার তারাবি নামাজ এবং ঈদের নামাজও যার যার বাসায় পড়তে হবে।

মধ্যপ্রাচ্যের এ দেশটির ইসলাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের এক প্রশ্নের জবাবে শুক্রবার গ্র্যান্ড মুফতির এ উত্তর আসে বলে সৌদি গেজেটের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়। মহামারির মধ্যে মসজিদে জামাতে নামাজ বন্ধ থাকায় আসন্ন রোজায় তারাবির নামাজ কীভাবে হবে, সে বিষয়ে অনেকে ইসলাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে প্রশ্ন করেছিল। মন্ত্রণালয় তখন দিক নির্দেশনা চেয়ে সেই প্রশ্ন গ্র্যান্ড মুফতির কাছে পাঠায়।

উত্তরে শেখ আবদুলআজিজ বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে বিধিনিষেধের কারণে যদি মসজিদে যাওয়া সম্ভব না হয়, তাহলে বাড়িতেই তারাবির নামাজ পড়া যাবে। ঈদের নামাজের ক্ষেত্রেও একই কথা প্রযোজ্য হবে। সৌদি আরবে ইসলামী আইনশাস্ত্রের কোনো ব্যাখ্যার প্রয়োজন হলে সে বিষয়ে ফতোয়া দেওয়ার চূড়ান্ত এখতিয়ার এই গ্র্যান্ড মুফতির হাতে ন্যস্ত।

এর আগে সৌদি আরবের ইসলাম বিষয়ক মন্ত্রী শেখ ড. আব্দুল লতিফ বিন আবদুল আজিজ আশ-শেখও আগামী সপ্তাহ থেকে শুরু হতে যাওয়া রোজার মাসে ঘরে বসেই তারাবি নামাজ পড়ার আহ্বান জানিয়েছিলেন।

সৌদি আরবে এ পর্যন্ত সোয়া ৬ হাজারের বেশি মানুষ নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আর মৃত্যু হয়েছে অন্তত ৮৩ জনের।

মহামারির বিস্তার রোধে মার্চের মাঝামাঝি সময় থেকে সেখানে মসজিদে জামাতে নামাজ পড়া বন্ধা রাখা হয়েছে। মদিনায় মসজিদে নববী কর্তৃপক্ষ বলেছে, এবারের রোজায় মসজিদে ইফতারেরও কোনো আয়োজন করা যাবে না।

 

আরও