লক্ষ্মীপুরে তিন চিকিৎসকসহ ২০ জন কোয়ারেন্টাইনে

লক্ষ্মীপুরে সবশেষ ৪৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় নতুন চারজনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় ২৬ জন করোনায় আক্রান্ত হলেন।

এর মধ্যে সদর হাসপাতালের পুরুষ ওয়ার্ডের এক রোগীর করোনা ধরা পড়েছে। ওই রোগীর সংস্পর্শে আসা তিন চিকিৎসকসহ হাসপাতালে কর্মরত ২০ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠনো হয়েছে। একই সঙ্গে হাসপাতালটির দোতলা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। সোমবার (২০ এপ্রিল) দুপুরে জেলা সিভিল সার্জন আবদুল গাফ্ফার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সিভিল সার্জন আবদুল গাফ্ফার বলেন, করোনা উপসর্গ নিয়ে ওই রোগী হাসপাতালে ভর্তি ছিল। নমুনা সংগ্রহ করে চট্টগ্রামে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছিল। তার নমুনায় করোনা পজিটিভ আসে। এজন্য তার সংস্পর্শে আসা তিন চিকিৎসক, নার্স ও স্টাফসহ ২০ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। একই সঙ্গে হাসপাতালের দোতলা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। পূর্ণাঙ্গভাবে জীবাণুমুক্ত করে দোতলা আবার চালু করা হবে।

এদিকে রোববার (১৯ এপ্রিল) সন্ধ্যায় রামগতির চর আফজল গ্রামে ঢাকাফেরত এক যুবক করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। তার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। মৃত যুবকের সংস্পর্শে আসা আরও ১০ জনের নমুন সংগ্রহ করেছে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

রামগতি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. কামনাশিস মজুমদার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ১২ দিন আগে ঢাকার কর্মস্থল থেকে ওই যুবক বাড়ি ফেরেন। এর মধ্যে গত দুইদিন তিনি জ্বর ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। তার মৃত্যুর ঘটনায় তিন বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, লক্ষ্মীপুর সদর, রামগতি, কমলনগর ও রামগঞ্জ উপজেলায় এ পর্যন্ত ২৬ জনের করোনাভাইরাস পজিটিভ পাওয়া গেছে।

 

আরও