পাকিস্তানে করোনা চিকিৎসায় প্লাজমা থেরাপিতে সাফল্য

প্রানঘাতী করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় পাকিস্তানে প্লাজমা থেরাপিতে সাফল্য পাওয়া গেছে বলে দাবি করেছেন দেশটির চিকৎসকরা।

দেশটির ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ব্লাড ডিজিজের প্রধান ডা. তাহির শামসি শনিবার গণমাধ্যমকে বলেছেন, আলহামদুলিল্লাহ!করোনা রোগীর চিকিৎসায় প্লাজমা থেরাপিতে আমরা সাফল্য পেয়েছি।

এই থেরাপিতে চিকিৎসা দেয়া প্রথম রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন।

তবে তিনি রোগীর নাম বা কোন হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন এ কথা বলেননি।

প্রথম সাফল্যের পর এবার আরও ৩৫০ কোভিড-১৯ রোগীকে এ থেরাপি দেয়া হবে বলে জানান ওই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক।খবর আনাদোলুর।

পাকিস্তানের আট প্রদেশের হাসপাতালেই শুরু হয়েছে প্লাজমা থেরাপি।

এ চিকিৎসায় কোভিড-১৯ রোগ থেকে মুক্ত হওয়া ব্যক্তির প্লাজমা সংগ্রহ করে আক্রান্ত ব্যক্তিকে দেয়া হয়।

এতে তার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায় এবং সুস্থ হয়ে ওঠে। তবে এ চিকিৎসক আরও বলেন, পরীক্ষামূলকভাবে সফল হলেও সব রোগীর ক্ষেত্রে এ থেরাপি কাজ করবে এমনটি বলার এখনও সময় আসেনি।

১২৫ বছর ধরে চিকিৎসা বিজ্ঞানে এ পদ্ধতির প্রচলন আছে।

ডা. শামসির বলেন, ইবোলা ও সার্সের চিকিৎসায় প্লাজমা থেরাপি প্রয়োগ করা হয়েছে।

বর্তমানে আটটিরও বেশি দেশে দেড় হাজার হাসপাতালে এ থেরাপিতে করোনা রোগীদের চিকিৎসা চলছে।

পাকিস্তানে এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২৮ হাজার ৭৩৬ জন এবং মারা গেছেন ৬৩৬ জন।

 

আরও