করোনার উপসর্গ নিয়ে ঢাবি মেডিকেল সেন্টারের কর্মকর্তার মৃত্যু

করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) উপসর্গ তথা জ্বর-সর্দি-হাঁচি-কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) মেডিকেল সেন্টারের প্রধান ফার্মাসিউটিক্যাল কর্মকর্তা জ্যোতির্ময় পাল মারা গেছেন।

সোমবার (১১ মে) রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে মারা যান তিনি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টারের প্রধান মেডিকেল অফিসার ডা. সারওয়ার জাহান মুক্তাফী তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, জ্যোতির্ময় পাল শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। কিন্তু কুর্মিটোলা হাসপাতালে তিনি মারা যান।

তিনি আরও জানান, তিনি এক সপ্তাহ আগে জ্বর-সর্দিতে আক্রান্ত হন। ওষুধ সম্পর্কে ধারণা থাকায় নিজে নিজে সেবন করে মোটামুটি সেরেও ওঠেন। কিন্তু রোববার (৯ মে) শরীর দুর্বল হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে শ্বাসকষ্ট দেখা দেয় তার। ওই অবস্থায় স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তির চেষ্টা করা হলেও ভর্তি না নিয়ে জ্যোতির্ময় পালের নমুনা নেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এদিকে ওইদিন রাতেই শ্বাসকষ্ট বাড়লে কুর্মিটোলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। কিন্তু সেখানে আইসিইউ সাপোর্ট না পাওয়ায় সোমবার (১০ মে) সকালে তার মৃত্যু হয়।

জানা যায়, জ্যোতির্ময় পাল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে চাকরির পাশাপাশি রায়েরবাজারে একটি ওষুধের দোকানও পরিচালনা করতেন।

তার মৃত্যুর ঘটনায় রাজধানী রায়েরবাজারের ছাতা মসজিদ লেন আবাসিক এলাকা লকডাউন করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

 

আরও