৫০০ টাকার বাসভাড়া ১৫০০, হাতেনাতে ধরলেন ম্যাজিস্ট্রেট

স্বাস্থ্যবিধি না মেনে অতিরিক্ত যাত্রী বহন ও নির্ধারিত ভাড়ার চেয়ে বেশি ভাড়া আদায় করায় চার বাসকে ২১ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় মাস্ক না পরায় এক যাত্রীকে ৫০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (০৪ জুন) দুপুরে নগরীর নথুল্লাবাদ ও রূপাতলী বাস টার্মিনালে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিয়াউর রহমান ও শরীফ মো. হেলাল উদ্দিন ভ্রাম্যমাণ আদালতের এ অভিযান চালান। অভিযানে সহায়তা করেন র্যাব ও বিআরটিএর সদস্যরা।

জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিয়াউর রহমান বলেন, নথুল্লাবাদ বাস টার্মিনালে দেখা যায় ঢাকাগামী দিদার ট্রাভেলস ও চট্টগ্রামগামী অন্তরা পরিবহন, এসএ পরিবহন বিআরটিএর নির্ধারিত (৬০ ভাগ বৃদ্ধি) ভাড়ার চেয়েও যাত্রীদের কাছ থেকে দ্বিগুণ-তিনগুণ ভাড়া আদায় করছে। বাসগুলোর সুপারভাইজার নির্ধারিত (৬০ ভাগ বৃদ্ধি) ভাড়ার ৫০০-৭০০ টাকার স্থলে ১৫০০-১৬০০ আদায় করছেন। জানতে চাইলে বিষয়টি স্বীকার করে বাসের সুপারভাইজার ও চালকরা এজন্য মালিকপক্ষকে দায়ী করেন। পরে ওই তিন বাসকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া মাস্ক না পরায় এক যাত্রীকে ৫০০ টাকা জরিমানা করা হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শরীফ হেলাল উদ্দিন বলেন, রূপাতলী বাস টার্মিনালে স্বাস্থ্য বিধি না মেনে একটি বাসে ৫০ শতাংশের বেশি যাত্রী বহন করা হয়েছিল। এ কারণে বাসের সুপারভাইজারকে এক হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

 

আরও