লাদাখে চীনের ৪৩ সৈন্য হতাহত, দাবি ভারতের

লাদাখ সীমান্তের গালওয়ান উপত্যকায় সংঘর্ষে চীনের ৪৩ সেনা হতাহত হয়েছে বলে দাবি করেছে ভারত। মঙ্গলবার সূত্রের বরাতে এ তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় বার্তা সংস্থা এএনআই।

ভারতের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, পূর্ব লাদাখে উত্তেজনা প্রশমনের চেষ্টা চলাকালীন চীনা সেনারা একতরফাভাবে স্থিতিশীলতা পরিবর্তনের চেষ্টার কারণেই গালওয়ান উপত্যকায় এই সহিংস ঘটনা ঘটেছে। চীনা সেনারা উচ্চ পর্যায়ের চুক্তি অনুসরণ করলে এই পরিস্থিতি এড়ানো সম্ভব হতো।

এদিনের সহিংসতায় ভারতের ২০ সেনা প্রাণ হারিয়েছেন এবং নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলেও জানিয়েছে এএনআই। ১৯৭৫ সালের পর সম্ভবত এই প্রথম ভারত-চীন সীমান্তে সামরিক প্রাণহানির ঘটনা ঘটল।

এর আগে, সীমান্তের এই সংঘর্ষে ভারতের এক কর্নেল পদমর্যাদার কর্মকর্তা ও দুজন সেনা জওয়ান নিহত হয়েছেন বলে ভারতীয় সেনাবাহিনীর এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছিল।

চীনের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে এখনও হতাহতের প্রকৃত সংখ্যা জানানো হয়নি। তবে ভারতীয় সৈন্যদের বিরুদ্ধে সীমান্ত অতিক্রম করে চীনা ভূখণ্ডে প্রবেশের অভিযোগ এনেছে বেইজিং।

চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ঝ্যাও লিজিয়ান বলেছেন, ভারতীয় সৈন্যরা সোমবার অন্তত দুবার সীমান্ত অতিক্রম করে অনুপ্রবেশের পর চীনা কর্মকর্তাদের ওপর হামলা চালিয়েছে। যে কারণে দুপক্ষের সৈন্যদের গুরুতর শারীরিক সংঘাত হয়েছে। সৈন্যদের সীমান্ত অতিক্রম এবং সংঘাতে জড়ানোর এ ঘটনায় দিল্লির কাছে কড়া প্রতিবাদ জানিয়েছে বেইজিং।

গত প্রায় দেড় মাস ধরেই লাদাখের ভারত ও চীনের মধ্যে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় (এলএসি) দুপক্ষের মধ্যে তীব্র উত্তেজনা চলছে। দুদেশের সেনাবাহিনীও রয়েছে মুখোমুখি অবস্থানে।

 

আরও