শামসুদ্দিন হাসপাতালে এক নারীকে প্লাজমা প্রদান

করোনাভাইরাস রোগের চিকিৎসায় সিলেটে পরীক্ষামূলক প্লাজমা প্রয়োগ করা হয়েছে। বুধবার (১৭ জুন) শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে এক নারীর শরীরে প্লাজমা প্রয়োগ করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের চিকিৎসক জন্মেজয় দত্ত।
তিনি জানান, হাসপাতালে আজ এক নারীর শরীরে প্লাজমা প্রয়োগ করা হয়েছে। করোনা আক্রান্ত থেকে সেরে ওঠা খলিলুর রহমান (৩৪) নামের এক ব্যক্তির শরীর থেকে ‘বি পজেটিভ’ গ্রুপ রক্তের প্লাজমা সংগ্রহ করা হয়। প্লাজমা দেওয়া ব্যক্তি সিলেটের বাসিন্দা হলেও তিনি চাকরিসূত্রে ঢাকায় থাকেন। ঢাকায় থাকাকালে তিনি করোনা আক্রান্ত হন। প্রায় চার সপ্তাহ আগে ঢাকার মুগদা জেনারেল হাসপাতালে করোনা চিকিৎসা নিয়ে তিনি সুস্থ হন। আজ সকালে তাঁর শরীর থেকে মাউন্ট এডোরা হাসপাতালের সহায়তায় প্লাজমা সংগ্রহ করা হয়।
পরে বেলা একটার দিকে শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে ওই নারীর শরীরে প্রয়োগ করা হয়। বেলা দুইটার দিকে প্লাজমা দেওয়া শেষ হয়।

জন্মেজয় দত্ত আরও জানান, আক্রান্ত নারীর পরিবার প্লাজমাদাতা জোগাড় করেছেন। আমরা প্রথমবারের মতো আক্রান্ত কারো শরীরে প্লাজমা প্রয়োগ করলাম। ওই নারীর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে। খলিলুর রহমান নামের ওই ব্যক্তির শরীর থেকে দুই ব্যাগ প্লাজমা সংগ্রহ করা হয়েছে। এক ব্যাগ নারীর শরীরে প্রয়োগ করা হয়েছে। অন্যটি সংগ্রহ করে রাখা হয়েছে। প্রয়োজন হলে সেটিও প্রয়োগ করা হবে। অথবা অন্য কাউকে প্রয়োগ করা হবে।

আরও