চীনের সঙ্গে বিবাদের মধ্যে পাকিস্তান সীমান্তে গোলাবর্ষণ ভারতের

 লাদাখ সীমান্তে চীনের সঙ্গে সংঘর্ষে ২০ সেনা নিহত হওয়ার পর থেকেই বেশ চাপে রয়েছে ভারত। গালওয়ান উপত্যকার পুরোটাই নিজেদের এলাকা দাবি করে বিপুল সেনা মোতায়েন করেছে চীন, প্রতিবেশী আরেক দেশ নেপালও সীমান্তে সেনা টহল বাড়িয়েছে। এসব নিয়ে এমনিতেই বেশ চাপে রয়েছে ভারত। এর মধ্যেই চিরশত্রু পাকিস্তানের সঙ্গেও নতুন করে দ্বন্দ্বে জড়াল দেশটি।

শনিবার পাকিস্তানশাসিত জম্মু-কাশ্মীরের হাবেলি জেলায় নিয়ন্ত্রণ রেখা (এলওসি) বরাবর ভারতের ব্যাপক গোলাবর্ষণে এক শিশু নিহত ও আরেক শিশুসহ আরও দুইজন আহত হয়েছে। রোববার পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম দ্য ডন এ তথ্য জানিয়েছে।

পুনচ ডিভিশন পুলিশের উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি) রশিদ নাঈম খান জানান, শনিবার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ১০টা থেকে অন্তত বিকেল ৪টা পর্যন্ত হিলান, কালামুল্লাসহ আশপাশের গ্রামের মানুষজনদের লক্ষ্য করে গোলাবর্ষণ করেছে ভারতীয় বাহিনী।

এতে কালামুল্লায় ১৪ বছর বয়সী এক কিশোরী নিহত ও তার মা আহত হন। এসময় একই গ্রামের নয় বছরের আরও এক শিশু আহত হয়েছে। গোলার আঘাতে বিধ্বস্ত হয়েছে অসংখ্য ঘরবাড়ি।

বিনা উস্কানিতে পাকিস্তানশাসিত কাশ্মীরে ভারতীয়দের এমন বর্বরোচিত হামলার প্রতি বিশ্ব সম্প্রদায়কে নজর দেয়ার আহ্বান জানিয়েছে পাকিস্তানি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

তবে পাকিস্তানের দাবি অগ্রাহ্য করে উল্টো তাদের দিকেই যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘনের অভিযোগ তুলেছে ভারত। তাদের দাবি, পাকিস্তান বিনা প্ররোচণায় রামপুর সেক্টরের নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর মর্টার হামলা চালায়। এতে ভারতের অন্তত চার বেসামরিক নাগরিক আহত হয়েছেন বলে জানানো হয়েছে।

 

আরও