ফাঁকা ফ্ল্যাটে অভিনেত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ, অশ্লীল ভিডিও তুলে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি!

ফাঁকা ফ্ল্যাট। টলিউডের এক অভিনেত্রীকে ধর্ষণ করে অশ্লীল ভিডিও তুলে রাখার অভিযোগ উঠল তাঁরই প্রেমিকের বিরুদ্ধে। বছর ছাব্বিশের ওই অভিনেত্রী নিজেই যাদবপুর থানায় গিয়ে অভিযোগ দায়ের করেছেন।

ঘটনাটি ঘটেছে গত ৫ জুলাই। অভিনেত্রীর কথায়, ফ্ল্যাট ফাঁকা থাকার সুযোগ নিয়েই তাঁকে ধর্ষণ করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, অভিনেত্রীর অশ্লীল ছবি মোবাইলে ভিডিও করে রাখে তাঁর প্রেমিক। কাউকে কিছু জানালে সেই ভিডিও ভাইরাল করে দেওয়ার হুমকিও তাঁকে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। ঘটনার পর গত কয়েকদিন ধরেই মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ওই টলিউড (Tollywood) অভিনেত্রী। এমনকী, বার কয়েক আত্মহত্যার কথাও ভেবেছেন তিনি। তবে পরে মানবাধিকার কমিশনের সঙ্গে কথা বললে মনোবল বাড়ে। তাঁদের পরামর্শেই অবশেষে বুধবার যাদবপুর থানায় প্রেমিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন তিনি। সূত্রের খবর, চিত্তরঞ্জন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে অভিনেত্রীর শারীরিক পরীক্ষাও হয়।

অভিনেত্রীর সঙ্গে ওই যুবকের প্রথম দেখা হয় ২০০৯ সালে। বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দেওয়াকালীন পরিচয় হয় মধ্যমগ্রামের ওই যুবকের সঙ্গে। এরপর অবশ্য তাঁদের মধ্যে যোগাযোগ ছিল না। টলিউডের এই তরুণী অভিনেত্রীর বাড়ি কল্যাণীতে হলেও বর্তমানে কর্মসূত্রে গল্ফগ্রিনের একটি বাড়িতে থাকেন তিনি। বছর তিনেক আগে ফের ওই যুবকের সঙ্গে দেখা হয়। যিনি কিনা পেশায় একজন ব্যবসায়ী। এরপর থেকেই বাড়তে থাকে ঘনিষ্ঠতা। অভিনেত্রীর অভিযোগ, সম্পর্কে যাওয়ার কিছুদিন পর থেকেই তাঁর কাছে ব্যবসার জন্য টাকা চাইতে থাকে ওই যুবক। শুধু তাই নয়, মারধরও চলত। স্বাভাবিকবশতই অভিনেত্রী দূরত্ব তৈরি করে ফেলেন ওই যুবকের থেকে। তবে চলতি বছর থেকেই ফের নতুন করে সম্পর্ক দানা বাঁধতে থাকে, তাঁর প্রেমিক ক্ষমা চেয়ে নেওয়ার পর থেকে। এবারও সেই একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি! ফের প্রেমিক টাকা দাবি করে বসে অভিনেত্রীর কাছ থেকে।

গত ৫ জুলাই টলিউড অভিনেত্রীর গলফগ্রীনের ওই ফ্ল্যাট থেকে টাকা নিতে গিয়েই তাঁকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। সেই সঙ্গে অশ্লীল ভিডিও তুলে রাখার কথাও জানিয়েছেন অভিনেত্রী।

 

আরও