সর্বশেষ

স্বাভাবিক হচ্ছে কাতার

কাতারে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা কমে আসায় স্বাভাবিক অবস্থা ফিরতে শুরু করেছে জনজীবনে। আর একের পর এক বিধিনিষেধ প্রত্যাহারও করে নেওয়া হচ্ছে। এতদিন সপ্তাহে ৫ দিন সকাল ৭টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত দোকান-পাট খোলা রাখার নিয়ম ছিল। শুক্রবার থেকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

আজ থেকে সপ্তাহে ৭ দিন খোলা রাখা যাবে দোকান-পাট। সারা বিশ্বের মতো কাতারেও তাণ্ডব চালিয়েছে মহামারি করোনাভাইরাস। ২৮ লাখ জনসংখ্যার দেশটিতে ১২ হাজার বাংলাদেশিসহ ১ লাখ ২ হাজার ৬৩০ মানুষ আক্রান্ত হয়েছে ভাইরাসটিতে।

যদিও এরই মধ্যে ৯৮ হাজার ২৩২ জন মানুষ সুস্থ হয়ে উঠেছেন, করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে কিছু এলাকা লকডাউনসহ কড়াকড়ি বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ায় ধীরে ধীরে বিধিনিষেধ প্রত্যাহার করে নেওয়া হচ্ছে, আজ থেকে বিভিন্ন ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান সাপ্তাহে ৭ দিন খোলা রাখা যাবে, এমন সিদ্ধান্তে খুশি প্রবাসী বাংলাদেশি ও ব্যবসায়ীরা।

তবে এখন পর্যন্ত জনবহুল এলাকায় রেস্টুরেন্টেগুলোতে বসে খাওয়া দাওয়া নিষিদ্ধ রয়েছে। সেলুন, বিউটি পার্লার, সিসার দোকান, জনবহুল এরিয়ার বিভিন্ন মার্কেট, স্কুল কলেজ, মাদরাসা ও শুক্রবার জুমার নামাজ আদায় বন্ধ রয়েছে। এখন পর্যন্ত ২০ জন বাংলাদেশিসহ মারা গেছেন ১৪৬ জন।

গত ডিসেম্বরের শেষদিকে চীনের উহান ১ম এই প্রাণঘাতী ভাইরাস শনাক্ত হয়। বর্তমানে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে এই মহামারি। ভাইরাসটিতে এখন পর্যন্ত ১ কোটি ১২ লাখ ৮৪ হাজার ২৬৫ জন আক্রান্ত হয়েছেন। মোট প্রাণ হারিয়েছে ৫ লাখ ৩৫০ হাজারের বেশি মানুষ। এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৬১ লাখের ও বেশি।

 

আরও