স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালকসহ ৪ জনকে দুদকে তলব

রিজেন্ট হাসপাতালের মাধ্যমে করোনা সনদ দেওয়ার নামে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ অনুসন্ধানে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রাক্তন পরিচালক ডা. মো. আমিনুল হাসানসহ চার কর্মকর্তাকে তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) দুদকের প্রধান কার্যালয় থেকে অনুসন্ধান দলের প্রধান পরিচালক শেখ মো. ফানাফিল্যা সই করা তলবি নোটিশে তাদের আগামী ১২ আগস্ট হাজির হতে বলা হয়েছে। সংস্থাটির পরিচালক (জনসংযোগ কর্মকর্তা) প্রনব কুমার ভট্টাচার্য্য এ তথ্য জানিয়েছেন।

তলবকৃতরা হলেন-স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রাক্তন পরিচালক ডা. মো. আমিনুল হাসান, উপ-পরিচালক মো. ইউনুস আলী, ডা. মো. শফিউর রহমান ও গবেষণা কর্মকর্তা ডা. মো. দিদারুল ইসলাম।

নোটিশে বলা হয়েছে, রিজেন্ট হাসপাতালের মাধ্যমে জনসাধারণের সাথে প্রতারণা করে করোনা সনদ দেওয়ার নামে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ এবং রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান সাহেদসহ সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে চলমান অনুসন্ধানের স্বার্থে তাদের বক্তব্য প্রয়োজন। তাই তাদের যথা সময়ে হাজির হতে অনুরোধ করা হলো।

এই ঘটনায় সকালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক ডিজি ডা. আবুল কালাম আজাদকে আগামী ১৩ আগস্ট জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নোটিশ পাঠানো হয়।

রিজেন্ট হাসাপাতালের নামে এনআরবি ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে দেড় কোটি টাকা ও ফারমার্স ব্যাংক থেকে ১ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে সাহেদ করিমসহ বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে দুটি মামলা করেছে দুদক। দুদক সাহেদের মালিকানাধীন রিজেন্ট গ্রুপের আটটি সহযোগী প্রতিষ্ঠানের সন্ধান পেয়েছে। এগুলো হলো- রিজেন্ট হাসপাতাল লিমিটেড, রিজেন্ট কেসিএস লিমিটেড, মুনলাইট রিসোর্ট, ফোর স্টার ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড, মুনলাইট বিল্ডার্স, রিজেন্ট ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি, ঢাকা সেন্ট্রাল কলেজ, দ্য ডেইলি অন্য দিগন্ত ও কর্মমুখী কর্মসংস্থান সোসাইটি।

 

আরও