যেভাবে নিজেকে বদলেছেন আরিফিন শুভ


চরিত্রের প্রয়োজনে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন রূপ ধারণ করতে হয় একজন অভিনেতা বা অভিনেত্রীকে। যার জন্য কখনও ওজন বাড়াতে হয় আবার কখনও কমাতে হয় সেটি। মাঝে মধ্যে বদলে ফেলতে হয় চেহারাও।

বলিউড, হলিউড ও টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে কম বেশি সব তারকাই তাদের চরিত্রের প্রয়োজনে নিজেদের দারুণভাবে ট্রান্সফর্ম করে উপস্থাপন করে থাকেন। যা বাংলাদেশি তারকাদের মধ্যে খুব একটা দেখা যায় না বললেই চলে।

তবে অতিতের সেই চিন্তাধারাকে একেবারে পাল্টে দিলেন জনপ্রিয় অভিনেতা আরিফিন শুভ। সম্প্রতি নিজেকে তিনি এমনভাবে উপস্থাপন করলেন যা, রীতিমতো তাক লাগিয়ে দিয়েছে সকলকে।

বেশ কিছুদিন ধরেই নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে নানা ধরনের ছবি শেয়ার করছিলেন আরিফিন শুভ। যার বেশিরভাগরই ছিলো ডায়েটে থাকাকালীন যে খাবার খাওয়া হয়ে থাকে সেগুলোর ছবি। এছাড়া ওয়ার্কআউটের ছবি শেয়ার করে তিনি তার ভক্তদের নতুন কিছু দেখার জন্য অপেক্ষা করতে বলেছিলেন।

আজ (১৭ সেপ্টেম্বর) একটি ভিডিও শেয়ার করে ভক্তদের সেই অপেক্ষার অবসান ঘটালেন আরিফিন শুভ। গত নয় মাসের কঠোর পরিশ্রমে নিজেকে কিভাবে পরিবর্তন করেছেন সেটিই ভিডিও মাধ্যমে ভক্তদের সঙ্গে শেয়ার করেছেন এই অভিনেতা।

আরিফিন শুভর ট্রান্সফরমেশন জার্নিটা মোটেও সহজ ছিলো না। কিন্তু এই তারকা মনে করেন, আপনি যদি মন থেকে কিছু চান আর ইচ্ছে থাকে তাহলে পৃথিবীর সবকিছুই করা সম্ভব।

এই ট্রান্সফরমেশনের জন্য অতিরিক্ত ওয়েট তুলতে হয়েছিলো আরিফিন শুভকে। যার ফলে পায়ের গোড়ালি এবং হাঁটুতে চোট পেয়েছিলেন তিনি। পায়ে জমে গিয়েছিলো পানিও। এ কারণে তাকে সম্পূর্ণ বিশ্রামে থাকার নির্দেশ দিয়েছিলেন চিকিৎসকরা।

কিন্তু বাড়িতে বসে কোনভাবেই নিজের মনকে শান্তনা দিতে পারছিলেন না শুভ। শেষশেষ সব যন্ত্রণা ভুলে নিজের মনের জোরে আবার উঠে দাঁড়ান তিনি। শুরু করেন এক্সারসাইজ। আর আজ তিনি ৯৪ থেকে ৮২ কেজিতে এসেছেন। বানিয়েছেন সিক্সপ্যাক অ্যাবস।

জানা গেছে- নিজের পরবর্তী ছবি মিশন এক্সট্রিম-এর জন্যই আরিফিন শুভর এই ট্রান্সফরমেশন।

আরও