বাকের ভাই তথা আসাদুজ্জামান নূর আসছেন ঝংকার টিভিতে


আগামী ১৯শে সেপ্টেম্বর (শনিবার) ঝংকার টিভির লাইভ অনুষ্ঠানে আসছেন জনপ্রিয় অভিনেতা ও বরেণ্য সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব আসাদুজ্জামান নূর। তাঁর সাথে রয়েছেন প্রখ্যাত বাচিক শিল্পী, উপস্থাপক রবিশংকর মৈত্রী, বিশিষ্ট রবীন্দ্র সংগীত শিল্পী শ্রেয়া গুহঠাকুরতা ও রবীন্দ্র সংগীত শিল্পী মমতাজ মমতা। উপস্থাপনায় থাকছেন দেশে বিদেশ সম্পাদক নজরুল মিন্টো।
এক নজরে আসাদুজ্জামান নূর
একাধারে অভিনেতা, আবৃত্তিকার, বিজ্ঞাপন নির্মাতা, ব্যবসায়ী এবং একজন সফল রাজনীতিবিদ আসাদুজ্জামান নূর। মূলত বাংলাদেশ টেলিভিশনের নাটকে অভিনয়ের মাধ্যমেই আসাদুজ্জামান নূর পরিচিতি লাভ করেছেন। ১৯৯০ দশকে বাংলাদেশের জনপ্রিয় লেখক হুমায়ুন আহমেদের কোথাও কেউ নেই নামের একটি ধারাবাহিকে বাকের ভাই চরিত্রে অভিনয় করে তিনি ব্যাপক জনপ্রিয়তা পান। আগুনের পরশমণি তার সবচেয়ে জনপ্রিয় চলচ্চিত্র| ২০০১, ২০০৮ এবং ২০১৩ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে নিলফামারী জেলা হতে সাংসদ হিসাবে নির্বাচিত হন। বাংলাদেশ সরকারে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হিসেবেও তিনি দায়িত্ব পালন করেন।
আসাদুজ্জামান নূর মূলত থিয়েটারের মানুষ। মঞ্চ থেকেই তার মতো অভিনেতার উত্থান। নাগরিক নাট্য সম্প্রদায়ের হয়ে তিনি বহুকাল ধরে কাজ করে আসছেন। এই দলের জন্য বিদেশি একটি নাটকের অনুবাদ করেছিলেন নূর। জনপ্রিয় সেই প্রযোজনাটির নাম দেওয়ান গাজির কিসসা।
আসাদুজ্জামান নূর জনপ্রিয় টেলিভিশন দেশ টিভির ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং এশিয়াটিক সোসাইটি, মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর, নাগরিকসহ অনেক সংগঠনের সাথে জড়িত রয়েছেন। এছাড়া বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের সভাপতি তিনি।
পরিবারিক পরিচয়
আসাদুজ্জামান নূর ১৯৪৬ সালের ৩১ অক্টোবর নীলফামারী জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবার আবু নাজিম মো. আলী এবং মাতা আমিনা বেগম। তার বাবা-মা ছিলেন দুজনই স্কুলশিক্ষক। দুই ভাই আর এক বোনের মধ্যে আসাদুজ্জামান নূর সবার বড়। ১৯৮২ সালে ডা. শাহীন আকতারকে বিয়ে করেন তিনি। তাদের এক ছেলে এক মেয়ে। ছেলে সুদীপ্ত লন্ডনে একটি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উচ্চতর ডিগ্রি নিয়ে বর্তমানে দেশে একটি বহুজাতিক কোম্পানিতে কর্মরত। মেয়ের নাম সুপ্রভা মাত্র লেখাপড়া শেষ করেছে।

আরও