অর্জুনের পর সাইফুর ও রবিউল এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গণধর্ষণের দায় করলো

অর্জুন লস্করের পর গণধর্ষণের দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন মামলার প্রধান আসামি ছাত্রলীগ নেতা সাইফুর রহমান ও ৫ নম্বর আসামি রবিউল ইসলাম।

শুক্রবার রাতে সিলেটের মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট প্রথম আদালতের বিচারক জিহাদুর রহমানের আদালতে সাইফুর ও দ্বিতীয় আদালতের বিচারক সাইফুর রহমানের আদালতে রবিউলের জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়।

এর আগে শুক্রবার বিকেলে সিলেটের মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট প্রথম আদালতের বিচারক জিহাদুর রহমানের আদালতে মামলার ৪ নম্বর আসামি ছাত্রলীগ নেতা অর্জুন লষ্করে জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়।

শুক্রবার বিকেলে ৫ দিনের রিমান্ড শেষে তাদেরকে সিলেট মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট প্রথম আদালতের বিচারক জিয়াদুর রহমানের আদালতে তাদের হাজির করে পুলিশ। এ সময় আসামিরা আদালতে জবানবন্দি দিতে সম্মত হওয়ায় তাদের প্রথমে অর্জুন লস্করের এবং পরে সাইফুর রহমানের জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়। এছাড়া সিলেট মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দ্বিতীয় আদালতের বিচারক সাইফুর রহমানের আদালতে রবিউল ইসলামের জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়। রাত সাড়ে ১০টার দিকে তিন আসামির জবানবন্দি রেকর্ড করার পর তাদের আদালতের নির্দেশে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়। আদালতে আসামিরা ঘটনার সাথে নিজেদেও সংশ্লিষ্টতার কথা স্বীকার করে।

আরও