নোয়াখালী গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ঘটনায় আসামী সুমন চুনারুঘাটে গ্রেফতার 

  দেশের আলোচিত নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন মামলার অন্যতম  আসামি শামসুদ্দিন সুমনকে হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তবর্তী কালেঙ্গা পাহাড় থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।
৮ অক্টোবর  বৃহস্পতিবার সকালে তাকে কালেঙ্গা ত্রিপুরা বস্তি থেকে গ্রেফতার করা হয়। সুমন নোয়াখালী জেলার বেগমগঞ্জ থানার ইখলাছপুর গ্রামের নিয়ামত উল্লাহর ছেলে।
তাকে বেগমগঞ্জ থানায় হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে। হবিগঞ্জ পিবিআইর  অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: কুতুবুর রহামান চৌধুরী  জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পিবিআইর ইন্সপেক্টর শাহজাহান সিরাজের নেতৃত্বে  একটি টিম কালেঙ্গা পাহাড়ে ত্রিপুরা বস্তিতে অভিযান চালিয়ে সুমনকে গ্রেফতার করা হয়।
প্রসঙ্গত ২ সেপ্টেম্বর রাত ৯টার দিকে বেগমগঞ্জ উপজেলার একলাসপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের খালপাড় এলাকায় ওই গৃহবধূর বসতঘরে ঢুকে তার স্বামীকে পাশের কক্ষে বেঁধে রাখেন স্থানীয় বাদল ও তার সহযোগীরা।
এর পর গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন তারা। এ সময় গৃহবধূ বাধা দিলে তারা বিবস্ত্র করে বেধড়ক মারধর করে মোবাইলে ভিডিওচিত্র ধারণ করেন। সেটি ছড়িয়ে দেন ইন্টারনেটে।
এ ঘটনায় দেশব্যাপী তোলপাড় সৃষ্টি হয়। রোববার রাত ১টার দিকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে নির্যাতিত গৃহবধূ (৩৫) বাদী হয়ে মামলা করেন।
আরও