প্রতিমা বিসর্জনে ডিজে গান বাজানোর অপরাধে ১০ জন গ্রেফতার

দুর্গাপূজায় প্রতিমা বিসর্জনের সময় এবার ডিজে গান নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তবে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে প্রতিমা বিসর্জনের সময় ডিজে গান বাজানোর অপরাধে ১০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গে হুগলি জেলার উত্তরপাড়া থানা এলাকায় এ নিষেধাজ্ঞা অমান্য করায় তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়। এলাকার দু’টি পূজা কমিটি ডিজে গান বাজিয়ে বিসর্জন করতে যাওয়ায় এমন ব্যবস্থা নিল পুলিশ।

জব্দ করা হয়েছে ৮টি ডিজে বক্স। ডিজে বাজানোর অপরাধে দশমীর দিন একটি বিসর্জনের শোভাযাত্রাকে মাঝপথ থেকে ফিরিয়ে দিয়েছে পুলিশ।

করোনার কারণে এবার প্রতিমা বিসর্জনের সময় শোভাযাত্রার অনুমতি দেয়নি কলকাতার আদালত। পাশাপাশি নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে ডিজে সঙ্গীতেও।

পুলিশের বরাত দিয়ে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, উৎসবের মৌসুমে ডিজে বরদাস্ত করবে না পুলিশ। আদালতের পাশাপাশি পরিবেশ আদালতেরও নির্দেশ রয়েছে। একটা ছোট এলাকায় প্রচণ্ড শব্দ হলে বিশেষত বয়স্কদের অসুবিধা হয়। এটা বোঝা উচিৎ প্রত্যেকের। পুলিশকে প্রতিটি ক্ষেত্রে কড়া ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলা আছে।

হুগলির মাখলা এলাকার এক বাসিন্দা বলেন, পুলিশ, প্রশাসনের সঙ্গে বৈঠকে প্রতিটি পূজা কমিটিকে বারবার গাইডলাইনের বিষয়ে অবহিত করা হয়েছিল। এরপরেও কী করে উদ্যোক্তারা এই রকম কাণ্ড ঘটালেন? পুলিশের কড়া পদক্ষেপ নেয়া উচিৎ।

ডিজে বন্ধের জন্য পরিবেশকর্মীরা চাইছেন, পুলিশ আরও কড়া হোক। এক পরিবেশকর্মী বলেন, শুধু ডিজে বক্স আটক বা গ্রেফতার করলেই হবে না। পুলিশের উচিৎ ওই বক্স আর ব্যবসায়ীদের ফেরত না দেয়া। তাহলেই বক্স ভাড়া দেয়া বন্ধ হবে। পূজা উদ্যোক্তাদের অনুমতিও বাতিল করা উচিৎ। যে ক্লাব নিয়ম ভাঙল, তাদের নাম-ধাম দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের কাছে পাঠিয়ে দেয়াও জরুরি। পর্ষদ দূষণ-মূল্য ধার্য করে ওইসব ক্লাবের কাছ থেকে জরিমানা আদায় করবে।

 

আরও