সুনামগঞ্জ বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজে আগস্টে শুরু হচ্ছে পাঠদান


 সজ্জন ও পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ হিসেবে খ্যাত সুনামগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এমএ মান্নান এমপিকে শেখ হাসিনার সরকার পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের পূর্ণমন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়ার পর থেকেই জাতীয় উন্নয়নে পিছিয়ে থাকা হাওর-ভাটিকে নতুন উচ্চতায় তিনি নিয়ে যাবেন বলে এমনটা প্রত্যাশা করে আসছিলেন সুনামগঞ্জবাসী। যিনি জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই সুনামগঞ্জবাসীর উন্নয়নের অগ্রদূত, উন্নয়নের মহারথী হিসেবে কাজ করে চলেছেন। এরই ধারাবাহিকতায় ভাটি-বাংলার পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীকে চিকিৎসা সেবার দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে দিতে সুনামগঞ্জে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল স্থাপনে নিরলসভাবে কাজ শুরু করেন পরিকল্পনামন্ত্রী আলহাজ্ব এমএ মান্নান এমপি।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ২০২০-২১ সালের এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষায় ৫০ জন শিক্ষার্থী উত্তীর্ণ হয়ে ‘বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ, সুনামগঞ্জে’ অধ্যয়নের সুযোগ পেয়েছেন। তাদের পাঠদান শুরু হচ্ছে আগামী ১ আগস্ট থেকে।

সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার কাঠইর মৌজায় ‘বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, সুনামগঞ্জ’-এর জন্য সুনামগঞ্জ-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়ক ঘেঁষে মদনপুর-দিরাই সড়কের উভয় পাশেই মদনপুর পয়েন্ট এলাকায় গত বছরের মার্চ মাসে ৩৫ একর জমি অধিগ্রহণ করা হয়। পরে শুরু হয় মেডিকেল কলেজের স্থাপনা নির্মাণকাজ। যা পুরোদমে চলমান রয়েছে।

জানাগেছে, বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, সুনামগঞ্জ-এর জন্য মোট ২৯টি ভবন নির্মাণ করা হবে। এর ভেতরে থাকবে খেলার মাঠ ও পুকুর। এর আওতায় একটি হাসপাতাল ভবন, একটি একাডেমিক ভবন, একটি করে ছাত্র ও ছাত্রীনিবাস, একটি করে পুরুষ ও মহিলা ইন্টার্ন চিকিৎসক ডরমেটরি, অবিবাহিত পুরুষ ও মহিলা চিকিৎসকদের জন্য একটি করে আবাসিক ভবন, স্টাফ নার্স ডরমেটরি, জরুরি সেবায় নিয়োজিত পুরুষ ও নারী কর্মচারীদের জন্য একটি করে ভবন, একটি নার্সিং কলেজ ভবন, একটি নার্সিং শিক্ষার্থী নিবাস, একটি মর্গ, ব্যায়ামাগার, মসজিদ, বৈদ্যুতিক সাবস্টেশন, কাপড় ধোয়ার জন্য লন্ড্রি, অধ্যক্ষ ও পরিচালকের বাসভবন, বিভিন্ন আয়তনের ৬টি আবাসিক ভবন, পাবলিক টয়লেট, মেডিকেল বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ভবন, স্যুয়ারেজ বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ভবন, হাসপাতাল ভবন। মেডিকেল কলেজটির ৫০০ শয্যার হাসপাতাল নির্মাণের জন্য ১১শ’ ৭ কোটি ৮৭ লাখ টাকা ব্যয় নির্ধারণ করা হয়েছে। তবে সুনামগঞ্জ বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মূল ভবন ও ক্যা¤পাসের নির্মাণকাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ জেলার দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার শান্তিগঞ্জ এলাকায় নবনির্মিত দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে প্রাথমিকভাবে ‘বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, সুনামগঞ্জ’-এর অস্থায়ী ক্যা¤পাস নির্বাচন করেছে।

জানাযায়, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর প্রথমবারের মতো এই কলেজে ৫০টি আসন বরাদ্দ দেয়। ‘বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, সুনামগঞ্জ’-এর অবকাঠামো নির্মাণ না হওয়া পর্যন্ত দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে শিক্ষার্থীদের পাঠদান পরিচালিত হবে। দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মেডিকেল কলেজের পাঠদান চালুর বিষয়ে ইতিমধ্যে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ও অনুমোদন দিয়েছে এবং এমবিবিএস প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের আগামী ২২ মে থেকে ভর্তি শুরু এবং ১ আগস্ট থেকে পাঠদান শুরু হবে।

২০২০ সালে অনুমোদন পায় বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ, সুনামগঞ্জ এবং চলতি বছরের প্রথম দিকে অধ্যক্ষ হিসেবে নিয়োগ পান ডা. মনোজিৎ মজুমদার। এদিকে নবপ্রতিষ্ঠিত এই মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ নিয়োগ প্রদান করা হলেও উপাধ্যক্ষসহ অন্যদের নিয়োগের প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি’র একান্ত প্রচেষ্টার ফসল হিসেবে সুনামগঞ্জ বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে প্রথম বারের মতো এমবিবিএস প্রথম বর্ষে ৫০টি আসন বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে দক্ষিণ সুনামগঞ্জের অস্থায়ী ক্যাম্পাসকে দৃষ্টিনন্দনভাবে সাজানো হয়েছে। এ লক্ষ্যে পরিকল্পনামন্ত্রী আলহাজ্ব এম এ মান্নান এমপিসহ স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ নবনির্মিত দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজের অস্থায়ী ক্যাম্পাস পরিদর্শন করেছেন।

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. জসিম উদ্দিন জানান, স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা ব্যবস্থায় সুনামগঞ্জবাসীর জন্য একটি নতুন দিগন্তের সূচনা হবে। আগে যেখানে প্রায় ৬০ কিলোমিটার দূরে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে মরনাপন্ন রোগীকে নিয়ে যাওয়া হতো। পথিমধ্যে অনেক রোগী মারা যেতো। সুনামগঞ্জ বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল নির্মাণের ফলে সুনামগঞ্জের সংকটাপন্ন রোগীরা অল্প সময়ের মধ্যে চিকিৎসা গ্রহণ করতে পারবেন। যার ফলে রোগী মৃত্যুর ঝুঁকি কমে আসবে। আপতত শিক্ষার্থীদের পাঠদান কার্যক্রম শুরু হচ্ছে। অল্পদিনের মধ্যে রোগীদের সেবার কার্যক্রম শুরু হবে।
সুনামগঞ্জ বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. মনোজিৎ মজুমদার বলেন, সুনামগঞ্জবাসীর জন্য স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা ব্যবস্থায় সুনামগঞ্জ বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ মাইল ফলক হিসাবে কাজ করবে। ইতিমধ্যে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজের অস্থায়ী ক্যাম্পাসে এমবিবিএস ১ম বর্ষের শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার ক্ষেত্রে যে সকল সুযোগ-সুবিধা যেমন ক্যাম্পাস, আবাসিক হোস্টেল, লাইব্রেরি, ক্যান্টিন থাকার কথা সেগুলো এখানে স্থাপন করা হয়েছে। ২/৩ দিনের মধ্যে ছাত্রছাত্রী ভর্তির বিজ্ঞপ্তি সংবাদপত্রের মাধ্যমে প্রকাশ করা হবে।

পরিকল্পনামন্ত্রী আলহাজ্ব এম এ মান্নান এমপি জানান, সুনামগঞ্জবাসীর জন্য আমি আমৃত্যু কাজ করে যাবো। আগামী দিনেও সুনামগঞ্জবাসীর জন্য আরও বড় বড় প্রকল্প নিয়ে আসবো। জননেত্রী শেখ হাসিনার উপহার সুনামগঞ্জ বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ স্থাপনের ফলে হাওর জনপদের গ্রামের মানুষ উন্নত চিকিৎসার সুযোগ সুবিধা পাবেন। এটা আগে অবিশ্বাস্য ছিল। এখন তা বাস্তব।

আরও