অতিরিক্তি লাভের আশায় খারাপ চাল দেবেন না: সাধন চন্দ্র মজুমদার

 খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, অতিরিক্ত লাভের আশায় কোনো মিল মালিক ভিজিডি, খাদ্যবান্ধব ও রেশনের চাউল ক্রয় করে সেটা আবার পালিশ করে গোডাউনে আনার চেষ্টা করবেন না। আর যদি কেউ এ অপচেষ্টা করেন আপনাদের সাথে যতই ভালো সম্পর্ক হোক না কেন আমরা সেখানে কঠোর হবো। এবং যে গগোডাউন এই সব চাল কিনবে সেই গোডাউনের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার শনিবার দুপুরে ঢাকা থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে চলতি মৌসুমে নওগাঁসহ সারাদেশে অভ্যন্তরীন বোরো চাল সংগ্রহের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন। এ সময় মন্ত্রী বলেন, দুর্নীতি মুক্ত, হয়রানি ও স্বচ্ছ থেকে সারাদেশে কৃষক ও মিলারদের কাছ থেকে ধান চাল ক্রয় করা হচ্ছে এবং আমরা কৃষকদের ন্যায্যমূল্যে নিশ্চিত করে যাচ্ছি। এ বিষয়ে সকল বিভাগের বিভাগীয় কর্মকর্তা ও জেলা পর্যায়ে খাদ্য কর্মকর্তাদের সভা করে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও ধান দিতে এসে কোন কৃষক ও মিলার যেন হয়রানির শিকার না হয় সেদিকে কঠোর নজরদারি রয়েছে।

মন্ত্রী আরো বলেন, কৃষি অধিদপ্তর থেকে অনেক সময় তালিকা দেরি করে আসায় আমাদের বিপদে পড়তে হয়। যার কারণে আমাদের প্রকিউরমেন্ট দেরি হয় এবং প্রকিউরমেন্ট দেরি হওয়ার কারণে মিলাররা ধান কিনে রেখে দেয়। সেই কারণে এবার আমরা তাডাতাড়ি ধান ক্রয় শুরু করেছি এবং কৃষি মন্ত্রণালয় থেকে যদি কোন তালিকা নাও এসে থাকে যে কৃষক আগে আসবে সেই কৃষক আগে ধান দিতে পারবে।

নওগাঁয় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে নওগাঁর জেলা প্রশাসক হারুন অর রশীদ, রাজশাহীর আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রক জিএম ফারুক হোসেন পাটোয়ারি, জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক আলমগীর কবির, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মির্জা ইমাম উদ্দিন, নওগাঁ জেলা ধান্য চাউল আড়তদার ও ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি নিরোদ বরণ সাহা চন্দন, নওগাঁ জেলা চাউল কল মালিক গ্রæপের সভাপতি রফিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক ফরহাদ হোসেন চকদারসহ জেলা চালকল মালিক গ্রুপের নেতৃবৃন্দ আড়তদার ও মিল মালিকরা উপস্থিত ছিলেন।

আরও