মিতু হত্যা, বাবুল আক্তার ৫ দিনের রিমান্ডে

 মাহমুদা খানম মিতু হত্যা মামলায় তার স্বামী সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচ দিনের রিমান্ডে পাঠিয়েছেন আদালত। বুধবার (১২ মে) বেলা ৩টার দিকে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সরোয়ার জাহানের আদালত এ আদেশ দিয়েছেন। বাবুল আক্তারের আইনজীবী মো. আরিফুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বাবুল আক্তারের আইনজীবী বলেন, ‘বাবুল আক্তারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালত পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। একই সময় আদালত রিমান্ডের প্রতিবেদন ১০ দিনের মধ্যে দাখিল করার নির্দেশ দিয়েছেন।’

২০১৬ সালের ৫ জুন সকালে চট্টগ্রাম নগরীর জিইসি মোড়ে ছেলেকে স্কুল বাসে তুলে দিতে যাওয়ার সময় সড়কে খুন হন পুলিশ কর্মকর্তা বাবুল আক্তারের স্ত্রী মিতু। খুনিরা গুলি করার পাশাপাশি ছুরিকাঘাতে তাকে হত্যা করে। ঘটনার সময় বাবুল আক্তার ঢাকায় ছিলেন। হত্যাকাণ্ডের পর বাবুল আক্তার নিজে নগরীর পাঁচলাইশ থানায় অজ্ঞাত পরিচয় কয়েকজনকে আসামি করে মামলা করেন। ওই মামলা তদন্ত করতে গিয়ে পুলিশ এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে তার সম্পৃক্ততার তথ্য পায়। এরপর গত ১০ মে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিজেদের হেফাজতে নেয় পিবিআই। বর্তমানে বাবুল আক্তার পিবিআই হেফাজতে আছেন। তার শ্বশুরের দায়ের করা এই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে তাকে কারাগারে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

অন্যদিকে, বুধবার দুপুরে মিতু হত্যা মামলায় বাবুলের দায়ের করা হত্যা মামলায় চূড়ান্ত প্রতিবেদন জমা দেয় পিবিআই। এরপর ওই ঘটনায় বুধবার (১২ মে) দুপুর ১টার দিকে পাঁচলাইশ থানায় হাজির হয়ে বাবুল আক্তারকে প্রধান আসামি করে মামলা দায়ের করেন মিতুর বাবা সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা মোশাররফ হোসেন। মামলায় বাবুল আক্তারসহ আট জনকে আসামি করা হয়েছে।

আরও